ঢাকা, শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪৩১, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯ শাওয়াল ১৪৪৫

ইসলাম

স্বামীর মৃত্যুর পর মসজিদের কারুকাজ সম্পন্ন করেন স্ত্রী 

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৩ ঘণ্টা, মার্চ ৩, ২০১৯
স্বামীর মৃত্যুর পর মসজিদের কারুকাজ সম্পন্ন করেন স্ত্রী  স্বামীর মৃত্যুতে থমকে যাওয়া কাজ সম্পন্ন করেন তার স্ত্রী শেগদেম আক

তুরস্কের এক নারী স্বামীর রেখে যাওয়া মসজিদ-কারুকাজের অসম্পূর্ণ কাজ নিজেই পূর্ণ করেছেন। তার স্বামী দেশের এক মসজিদে কারুকার্য ও চিত্রশৈলীর কাজ করছিলেন। কিন্তু তার মৃত্যুতে কাজ মাঝপথে সাময়িক বন্ধ হয়ে যাওয়ায় মসজিদ কর্তৃপক্ষ দুশ্চিন্তায় পড়ে গিয়ে ছিলেন। তবে ওই নারী অত্যন্ত দক্ষতা ও কুশলতার সঙ্গে বাকি কাজ সম্পন্ন করেন।

স্বাভাবিকভাবে চিত্রশৈলী, হস্তলিপি ও রংতুলির কারুকাজের জন্য তুরস্ক বিশ্বজুড়ে বিখ্যাত। আর তুরস্কের সাকরিয়া প্রদেশের সুগতলু জেলা শহরে নবনির্মিত মসজিদটির ভেতরের কারুকাজ ও সৌন্দর্যায়নের কাজ চলছিল।

কিন্তু স্বামীর মৃত্যুতে থমকে যাওয়া কাজ সম্পন্ন করেন তার স্ত্রী শেগদেম আক।

৫৩ বছর বয়সী এ নারী মসজিদ-কর্তৃপক্ষকে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন এবং সে অনুযায়ী তিনি তার স্বামীর অসম্পূর্ণ কাজ শেষ করে অঙ্গীকার রক্ষা করেন। তার কারুকাজ ও আলপনায়ও ফুটে উঠেছে নান্দনিকতা ও মোহনীয়তা।

সংবাদমাধ্যম সাফাককে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে শেগদেম আক বলেন,‘সত্যি আমি আমার স্বামী কাজের প্রেমে পড়ে গিয়েছিলাম। বিখ্যাত কুফিক সংস্করণের মাধ্যমে মসজিদের অপূর্ণ কারুকাজ ও ক্যালিগ্রাফি সম্পন্ন করতে পেরে আমি ধন্য। ’

তিনি আরো জানান, তার স্বামী সাহিত্য ও ভিজ্যুয়াল আর্টসে কখনো প্যাটার্ন টেমপ্লেট ব্যবহার করেননি। বরং তিনি সবসময় মনের মাধুরী মিশিয়ে রং করতেন।

মসজিদের অলংকরণ ও কারুকাজের দায়িত্ব পালন করার সময় গত বছর নভেম্বরে তার স্বামী মারা যান।

ইসলাম বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]

বাংলাদেশ সময়: ১১৫৩ ঘণ্টা, মার্চ ০৩, ২০১৯
এমএমইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।