ঢাকা, সোমবার, ১৬ মাঘ ১৪২৯, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ০৭ রজব ১৪৪৪

ইসলাম

দেশের উন্নয়নে আলেমসমাজকে আরও বেশি সম্পৃক্ত করা হবে

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২১, ২০১৯
দেশের উন্নয়নে আলেমসমাজকে আরও বেশি সম্পৃক্ত করা হবে

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ বলেছেন, দেশের কওমী, আলীয়া, পীর-মাশায়েখসহ সব ধারার ওলামায়ে কেরামের মধ্যে সেতুবন্ধনের মাধ্যমে ঐক্যবদ্ধ প্লাটফর্ম তৈরি করা হবে। এর মাধ্যমে সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে দেশের আলেমসমাজকে আরও বেশি সম্পৃক্ত করা হবে।

মঙ্গলবার (১৯ নভেম্বর) ঢাকাস্থ গাউসুল আজম জামে মসজিদ কমপ্লেক্স মিলনায়তনে বাংলাদেশ জমিয়তুল মোদার্রেছীনের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় প্রধান অথিতির বক্তব্যে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দেশে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও উগ্রবাদ বিরোধী জনসচেতনতামূলক কার্যক্রমে দেশের ইমাম, খতিবসহ সমগ্র আলেমসমাজ অত্যন্ত আন্তরিকভাবে তাদের দায়িত্ব পালন করেছেন।

তাদের খুতবা, বয়ান ও ওয়াজ-মাহফিলের আলোচনার মাধ্যমে দেশের মানুষকে সচেতন করেছেন। এর ফলে জঙ্গীবাদ, উগ্রবাদ ও সন্ত্রাস নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশ ঈর্ষণীয় সাফল্য অর্জন করেছে । যা ইতোমধ্যে বিশ্বব্যাপী সুনাম অর্জন করেছে।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, জনগণকে রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক মোটিভেশনের পাশাপাশি ধর্মীয় মোটিভেশনর মাধ্যমে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ,মাদক, বাল্যবিবাহসহ নানাবিধ সামাজিক সমস্যার বিষয়ে আরও জোরালোভাবে সচেতন করতে হবে। এক্ষেত্রে দেশের সর্বস্তরের ওলামায়ে কেরাম, পীর-মাশায়েখদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার কোনো বিকল্প নেই। ওলামা মাশায়েখদের ঐক্যবদ্ধ প্লাটফরম তৈরি করে সরকারের সঙ্গে আরও নিবিড় সম্পর্ক তৈরি করতে হবে। এবিষয়ে আমি সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসার আহবান জানাই।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতোমধ্যে কওমী, আলীয়া ও পীর-মাশায়েখসহ সব ধারার ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ এবং আলেমসমাজের বিভিন্ন দাবি-দাওয়া পূরণ করেছেন। দেশের বহু সংখ্যক ইবতেদায়ী মাদ্রাসাসহ অনেক মাদ্রাসা এমপিওভুক্ত করেছেন। ইসলামী আরবী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেছেন। কওমী মাদ্রাসার দাওরায়ে হাদিসকে মাস্টার্সের মান দিয়ে বিল পাশ করেছেন। দারুল আরকাম মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেছেন। মসজিদভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা প্রকল্পের মাধ্যমে লক্ষ লক্ষ আলেম-ওলামার কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করেছেন।

এছাড়াও ইমাম-মুয়াজ্জিন কল্যাণ ট্রাস্টের মূলধন বৃদ্ধির মাধ্যমে ইমাম ও মুয়াজ্জিনদের কল্যাণে বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি করেছেন। বাংলাদেশের ইতিহাসে এ বছর প্রথম সরকারিভাবে দেশের সকল ধারার ৫৮ জন শীর্ষস্থানীয় ওলামায়ে কেরামের সমন্বয়ে হজ ওলামা-মাশায়েখ টিম গঠন করে হজ পালনের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন।

প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সকল দেশের সব ধারার ওলামায়ে কেরামের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখার বিষয়ে অত্যন্ত আন্তরিক। ওলামায়ে কেরামদের সঙ্গে নিয়েই তিনি উন্নত বাংলাদেশ গঠনের অভিযাত্রায় এগিয়ে যেতে চান।

জমিয়তুল মোদারেছিনের সভাপতি ও দৈনিক ইনকিলাবের সম্পাদক এ এম এম বাহাউদ্দীনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ জমিয়তুল মোদাররেছিনের মহাসচিব মাওলানা শাব্বির আহমদ মোমতাজি, সহ-সভাপতি ও করুনা মোকামিয়া কামিল মাদ্রাসা, বরগুনার অধ্যক্ষ শাহ মো. মাহমুদুল হাসান ফেরদৌস, যুগ্ম মহাসচিব ও দারুন্নাজাত সিদ্দিকীয়া কামিল মাদ্রাসা, ঢাকা এর অধ্যক্ষ আ. খ. ম আবু  বকর সিদ্দিক, যুগ্ম মহাসচিব ও ফরিদগঞ্জ আলীয়া মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ড. মো: মাহবুবুর রহমান, আন্তর্জাতিকবিষয়ক সম্পাদক ও মদিনাতুল উলুম কামিল মাদ্রাসা, ঢাকার অধ্যক্ষ মাওলানা আবদুর রাজ্জাক, চট্টগ্রাম মহানগরীর সেক্রেটারী অধ্যক্ষ মাওলানা মো. ইসমাইল,জমিয়াতুল মোদার্রেছীন ময়মনসিংহ বিভাগের সেক্রেটারী অধ্যক্ষ ড. মো. ইদ্রিস খান ও  মাওলানা মো. মাহবুবুর রহমান জৈনপুরী, বিশিষ্ট কলামিস্ট ও দৈনিক ইনকিলাবের সহকারী সম্পাদক মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী প্রমুখ।

ইসলাম বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। বিষয়ভিত্তিক লেখা ও জীবনঘনিষ্ঠ প্রশ্ন পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২১, ২০১৯
এমএমইউ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa