ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ বৈশাখ ১৪৩১, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫

ইচ্ছেঘুড়ি

বন্ধুদিবসে

চাইছি তোমার বন্ধুতা

মীম নোশিন নাওয়াল খান, নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪৫ ঘণ্টা, আগস্ট ৩, ২০১৪
চাইছি তোমার বন্ধুতা

বন্ধুত্ব দিবস। এই দিবসটার কথা মনে হলেই কারো চোখের পর্দায় ভেসে ওঠে কতগুলো হাসিমুখ, কারো আবার মনে হয় দুষ্টুমি-খুনসুঁটির ছবি।

বন্ধুত্ব সত্যিই খুব মিষ্টি একটা সম্পর্ক, যার কোনো ব্যাখ্যা নেই। আজ কিন্তু বন্ধুত্ব দিবস। প্রতি বছর আগস্ট মাসের প্রথম রবিবার বন্ধুত্ব দিবস উদযাপন করা হয়।

বন্ধুত্ব দিবসের ইতিহাসের দিকে যদি একটু ফিরে তাকাই, তাহলে কিন্তু বলা যায় একটা বন্ধুত্ব দিবস আমরা এ বছর ফেলে এসেছি। ২০১১ সালের ২৭ এপ্রিল জাতিসংঘের সাধারণ অধিবেশনে ৩০ এপ্রিল আন্তর্জাতিক বন্ধুত্ব দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয়। তবে অনেকগুলো দেশ আগস্ট মাসের প্রথম রবিবার বন্ধুত্ব দিবস পালন করে।

এখন অবশ্য বেশিরভাগ দেশেই আগস্ট মাসের প্রথম রবিবারেই বন্ধুত্ব দিবস পালন করা হয়। এছাড়া বিভিন্ন দেশ বিভিন্ন তারিখে পালন করে এই দিবসটি।



বন্ধুত্ব দিবসে আমরা কত কিছুই না করি! বন্ধুকে শুভেচ্ছা জানানো, উপহার দেওয়া, ফ্রেন্ডশিপ ব্যান্ড পরানো- অনেক কিছুর মাধ্যমে অনেক আনন্দে উদযাপন করা হয় বন্ধুত্ব দিবস। এতকিছুর ফাঁকে একটা কথা কিন্তু মনে রেখো, ভুল কাউকে যেন বন্ধু কোরো না।

বন্ধু তেমনই একজন, যে সবসময় তোমার ভালো চাইবে, তোমাকে সঠিক পথ দেখাবে। তাই তোমার বন্ধু হওয়া চাই সৎ এবং ভালো একজন মানুষ। ভুল বন্ধু নির্বাচন করলে কিন্তু সে বন্ধু তোমার ক্ষতিও করতে পারে। তাই বন্ধু নির্বাচনের ক্ষেত্রে খুব সতর্ক থাকা প্রয়োজন। একজন ভালো বন্ধু তোমার এক অমূল্য সম্পদ। তাই ভালো বন্ধু চিনতে ভুল কোরো না।

প্রিয় বন্ধুদের সঙ্গে খুশি আর আনন্দে কাটুক বন্ধুত্ব দিবস। অনেক অনেক শুভেচ্ছা।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪২ ঘণ্টা, আগস্ট ০৩, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।