ঢাকা, বুধবার, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪

ইচ্ছেঘুড়ি

বীরত্বের পদকগুলো

মীম নোশিন নাওয়াল খান, নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৩৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৪
বীরত্বের পদকগুলো

১৯৭১ সালে মুক্তিযোদ্ধাদের অসীম সাহস ও বীরত্বের মাধ্যমে আমরা পেয়েছি স্বাধীনতা। ৩০ লাখ শহীদের রক্তের বিনিময়ে অর্জিত হয়েছে এ দেশের বিজয়।

দেশের জন্য প্রাণপণ লড়াই করেছেন বীর যোদ্ধারা, দেশকে স্বাধীন করতে নিঃসংকোচে প্রাণ দিয়েছেন অনেকে। সেসব মুক্তিযোদ্ধাদের সবার কথা আমাদের জানা না থাকলেও যাদের বীরত্বের কথা জানা গেছে, তাদেরকে পরবর্তীতে রাষ্ট্রীয়ভাবে বিভিন্ন পদকে ভূষিত করা হয়েছে।

১৯৭৩ সালের ১৫ ডিসেম্বর বাংলাদেশ গেজেটের অতিরিক্ত সংখ্যায় বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ঘোষণা করা হয় পদকপ্রাপ্তদের নাম। ৬শ’ ৭৬জন মুক্তিযোদ্ধা বিভিন্ন খেতাবপ্রাপ্ত হন। তাদের মধ্যে সশস্ত্র বাহিনীর মুক্তিযোদ্ধা ৫শ’ ২০ জন ও বেসামরিক মুক্তিযোদ্ধা ১শ’ ৫৬ জন।

মুক্তিযুদ্ধে বীরত্বের জন্য চারটি খেতাব দেওয়া হয়। সেই খেতাবগুলো সম্পর্কে জানাব আজ।

বীরশ্রেষ্ঠ:

এটি রাষ্ট্রীয়ভাবে বীরত্বের জন্য প্রদত্ত সর্বোচ্চ খেতাব। এ খেতাবে ভূষিত হয়েছেন সাতজন শহীদ মুক্তিযোদ্ধা। জেনে নিই তাদের নামগুলো, বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান, বীরশ্রেষ্ঠ মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর, বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ শেখ, বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান, বীরশ্রেষ্ঠ মোস্তফা কামাল, বীরশ্রেষ্ঠ মোহাম্মদ রুহুল আমিন, বীরশ্রেষ্ঠ মুন্সি আব্দুর রউফ।

বীরউত্তম:

এটি বীরত্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ খেতাব। ৬৮জন মুক্তিযোদ্ধা এ খেতাবে ভূষিত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ৬৬জন সামরিক ও দু’জন বেসামরিক।

বীরবিক্রম:

বীরবিক্রম বাংলাদেশে বীরত্বের জন্য দেওয়া তৃতীয় সর্বোচ্চ রাষ্ট্রীয় খেতাব। এ খেতাবে ভূষিত মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা ১শ’ ৭৫জন। এদের মধ্যে সশত্র বাহিনীর ১শ’ ৪২ ও ৩৩ জন বেসামরিক।

বীরপ্রতীক:

বীরত্বের জন্য প্রদত্ত চতুর্থ খেতাব হলো বীরপ্রতীক। এ খেতাবে ভূষিত হয়েছেন ৪শ’ ২৬জন মুক্তিযোদ্ধা। এদের মধ্যে ৩শ’ পাঁচজন সশস্ত্র বাহিনীর ও ১শ’ ২১জন বেসামরিক মুক্তিযোদ্ধা।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa