ঢাকা, রবিবার, ৮ বৈশাখ ১৪৩১, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ১১ শাওয়াল ১৪৪৫

ইচ্ছেঘুড়ি

গুহার গভীরে সমুদ্র সৈকত!

মীম নোশিন নাওয়াল খান, নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩০৮ ঘণ্টা, আগস্ট ১২, ২০১৫
গুহার গভীরে সমুদ্র সৈকত!

গুহা বা গভীর গর্ত সবসময়ই রহস্যময়। এমন কিছু দেখলেই মনে হয়, নির্ঘাত সেখানে কোনো গুপ্তধন আছে! গুপ্তধন না থাকলে তারচেয়েও অনেক বেশি আশ্চর্য হওয়ার মতো জিনিস থাকতে পারে গুহায়।



কী থাকতে পারে বলো তো?


হ্যাঁ, বহু আগের ফসিল থাকতে পারে, থাকতে পারে অচেনা কোনো প্রাণীও। তাই বলে আস্ত একটা সমুদ্র সৈকত?

অবাক হওয়ার মতো খবরই বটে! মেক্সিকোর মারিয়েটা আইল্যান্ডসে প্লায়া ডেল আমোর নামক বিরাট এক গর্তের মধ্যে লুকিয়ে আছে একটা সমুদ্র সৈকত।

এই সৈকতটা কিন্তু একা একা গর্তের মধ্যে ঢুকে যায়নি। এর পেছনে আছে আরেকটা গল্প।


১৯০০ শতকের শুরুর দিকে মিলিটারি প্রশিক্ষণের জন্য ব্যবহৃত হতো পুয়ের্টো ভালার্টার পশ্চিমে অবস্থিত মারিয়েটা দ্বীপ। তখনই প্রথম বিশ্বযুদ্ধের প্রস্তুতি হিসেবে মিলিটারি প্রশিক্ষণের সময় বোমা বিস্ফোরণের ফলে মারিয়েটা আইল্যান্ডের বুকে তৈরি হয় বিশাল এক গর্ত। বোমা বিস্ফোরণে আরো কিছু গর্ত এবং গুহা তৈরি হয়েছিল, তবে সবগুলোর মধ্যে সবচেয়ে সুন্দর প্লায়া ডেল আমোর।


বোমা বিস্ফোরণের ফলে যে এত সুন্দর কিছু তৈরি হতে পারে, সেটা কেউ কখনো ভাবতেই পারে নি। তবে হ্যাঁ, এই সমুদ্র সৈকত মেক্সিকোর অন্যতম পর্যটন আকর্ষণ হলেও চাইলেই যে কেউ এখানে যেতে পারে না, কেননা এখানে পৌঁছানো কষ্টসাধ্য ব্যাপার।


ছোট্ট একটা টানেল দিয়ে এখানে প্রবেশ করতে হয়। সেই টানেলটি এতই ছোট যে সাঁতার বা স্কুবা ডাইভিং ছাড়া আর কোনোভাবে টানেল দিয়ে সৈকতে পৌঁছানো সম্ভব নয়।


বাইরে থেকে বোঝাই যায় না প্লায়া ডেল আমোরের ভেতর এত সুন্দর একটা সমুদ্র সৈকত আছে। তবে হেলিকপ্টারে অনেক উঁচু থেকে সৈকতটা দেখা যায়।  


বোমা বিস্ফোরণ কখনো কিছু তৈরি করে না, ধ্বংস করে। তবে এরও যে অনেক ভালো দিক থাকতে পারে, তার সবচেয়ে বড় প্রমাণ মেক্সিকোর এই লুকানো সমুদ্র সৈকত।



বাংলাদেশ সময়: ১৩০৯ ঘণ্টা, আগস্ট ১২, ২০১৫
এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।