ঢাকা, শনিবার, ১৩ মাঘ ১৪২৯, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ০৫ রজব ১৪৪৪

ইচ্ছেঘুড়ি

আলো জ্বলা গুহা

মীম নোশিন নাওয়াল খান, নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩১ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০১৫
আলো জ্বলা গুহা

ঢাকা: গুহার কথা বললে সাধারণভাবে পাহাড়ের কোলে অন্ধকার গর্তের কথা মনে হয়।

আচ্ছা ভাবো তো, তুমি একটা গুহায় ঢুকে দেখলে সেখানে ঝাড়বাতির মতো হলুদ-নীল আলো জ্বলছে।

আলোয় আলোয় মায়াবী এক পরিবেশ তৈরি হয়েছে গুহার ভেতরে।

অবিশ্বাস্য লাগছে নিশ্চয়ই? ভাবছ কোনো কল্পনার গুহার কথা বলছি?

আমি কিন্তু মোটেও কোনো কল্পনার গুহার কথা বলছি না। বলছি নিউজিল্যান্ডের ওয়াইটোমো গ্লো-ওয়ার্ম কেভের কথা।

এই গুহায় ঢুকলে এমন দৃশ্যই চোখে পড়বে। গুহার ভেতরে হলুদ-নীল স্নিগ্ধ, মায়াবী আলো। সেই আলো এত চমৎকার মায়াবী পরিবেশ তৈরি করে যে মুগ্ধ না হয়ে উপায় নেই। হয়তো ভাবছো কোনো আধুনিক প্রযুক্তির সাহায্যে গুহার ভেতরে আলোর ব্যবস্থা করা হয়েছে?

একদম ভুল ভাবছো। এই আলোটা কিন্তু প্রাকৃতিক। কীসের আলো জানো? জোনাকি পোকার! এজন্যই গুহাটার নাম গ্লো-ওয়ার্ম কেভ, অর্থাৎ জোনাকি গুহা।

নিউজিল্যান্ডের নর্থ আইল্যান্ডের ওয়াইটোমো শহরের ঠিক বাইরে অবস্থান ওয়াইটোমো গ্লো-ওয়ার্ম কেভের। এর ভেতরে অসংখ্য জোনাকি পোকার বাসই এই গুহার আকর্ষণীয় করে তুলেছে।

গুহার ভেতরে চুনাপাথরের স্তর প্রাকৃতিকভাবেই সুন্দর গঠন তৈরি করেছে। আর সেই চুনাপাথরের গায়েই রয়েছে অসংখ্য জোনাকি। তাদের হলুদ-নীল আলো গুহাটিতে এক অদ্ভুত মায়াবী পরিবেশ সৃষ্টি করে।

গুহার ভেতরে রয়েছে হ্রদ। সেই হ্রদে নৌকা নিয়ে ঘুরে বেড়ানোর সময় পর্যটকরা জোনাকির আলোয় সাজানো প্রাকৃতিক ঝাড়বাতির সৌন্দর্য উপভোগ করতে পারেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৪, ২০১৫
এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa