ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৬ মাঘ ১৪২৯, ৩১ জানুয়ারি ২০২৩, ০৮ রজব ১৪৪৪

ইচ্ছেঘুড়ি

পর্দা নামলো ফুলকি-বিজয় ডিজিটাল শিশু শিক্ষামেলার

নিউজ ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০১৬
পর্দা নামলো ফুলকি-বিজয় ডিজিটাল শিশু শিক্ষামেলার ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ঢাকা: রাজধানীর মিরপুরের মধ্য পীরেরবাগে শেষ হয়েছে ‘ফুলকি-বিজয় ডিজিটাল শিশু শিক্ষামেলা-২০১৬’।

তিনদিনের এ আয়োজনে ছিল শিশুশিক্ষার নানা উপকরণ এবং চিরচেনা বাংলার ইতিহাস-ঐতিহ্য প্রদর্শনী আর খেলাধুলাসহ মজার মজার নানা বিষয়।

যা মাতিয়ে রাখে উপস্থিত শিশু-কিশোর ও অভিভাবকদের।

শনিবার (২৩ জানুয়ারি) মেলার তৃতীয় ও শেষ দিনের কার্যক্রম শুরু হয় বিকেল ৩টা থেকে। মেলার স্টলগুলোতে এদিন ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো।

সমাপনী অনুষ্ঠানে ছিল ‘শিশু অধিকার বাস্তবায়নে গণমাধ্যমের ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভা, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ, যাদু প্রদর্শনী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন শিশু সাহিত্যিক আলী ইমাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন নাট্যকার ও কথাসাহিত্যিক মোহাম্মদ এমদাদুল হক, দৈনিক সমকালের সিনিয়র রিপোর্টার অমরেশ রায়, বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কমের আউটপুট এডিটর অশোকেশ রায় এবং আলিমউদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক ও লেখক এ বি এম মিজানুর রহমান। আলোচক ছিলেন শিশু সংগঠক বিএনএসওয়ান.টিভির সিওও বশিরুল আলম নান্নু এবং অন্তরঙ্গ শিশু সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজ সুজন।

স্বাগত বক্তব্য দেন শিশু সংগঠক ও ফুলকি নার্সারি স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ তৌহিদুজ্জামান। সকলকে অভিনন্দন জানান স্কুলের পরিচালক ও প্রধান শিক্ষক উম্মে রোমান জয়া।  

প্রতিদিন বিকেল ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত মেলায় ছিল বিজয় ডিজিটাল শিশুশিক্ষার প্রদর্শনী, সিসিমপুর, শিশুদের শিক্ষার ডিজিটাল ডিভাইস প্রদর্শনী, থ্রি-ডি মুভি, শিশু চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও প্রশ্নোত্তর পর্ব। আরও ছিল ম্যাজিক শো, পুতুল নাচ, নাগরদোলা, ঘোড়ার গাড়িতে ভ্রমণ, বায়স্কোপ, জোকার, ভাগ্য গণনা, জাম্পিং, যেমন খুশি তেমন সাজো, মুকাভিনয়, মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক শিশুতোষ চলচ্চিত্র প্রদর্শনী, বইমেলা, বাংলার কৃষ্টি নিয়ে ফ্যাশন শো, শিশু-কিশোরদের অংশগ্রহণে নাচ, গান, আবৃত্তিসহ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং র‌্যাফেল ড্র।

শিশুর মেধা বিকাশে সহায়তা করতে ফুলকি নার্সারি স্কুলের আয়োজনে নিজস্ব ক্যাম্পাসে বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) শুরু হয় মেলাটি।

ওইদিন বিকেলে প্রধান অতিথি হিসেবে মেলার উদ্বোধন করেন তথ্যপ্রযুক্তিবিদ মোস্তাফা জব্বার।

ডিজিটাল শিক্ষা শিশুদের অধিকার বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, উন্নত বিশ্বের শিশুরা যখন প্রযুক্তির হাত ধরে শিক্ষা গ্রহণ করছে, আমাদের শিশুরা কেনো পিছিয়ে থাকবে? যুগের চাহিদার সঙ্গে ডিজিটাল শিক্ষা শিশুদের অধিকার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের ১৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলার হুমায়ুন রশিদ জনি, প্রথম আলোর সিনিয়র রিপোর্টার সেলিম জাহিদ, বিজয় ডিজিটালের ব্যবস্থাপক জেসমিন জুঁই এবং মিরপুর ইংলিশ ভার্সন স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রতিষ্ঠাতা ইয়াহিয়া খান রিজন। আলোচনায় আরও অংশ নেন আলিমউদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক ও লেখক এ বি এম মিজানুর রহমান এবং মালকোষ সংগীত বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক এস এম সলিমুল্লাহ মুরাদ।

উদ্বোধনী আয়োজনে সভাপতিত্ব করেন শিশু সংগঠক ও ফুলকি নার্সারি স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা মোহাম্মদ তৌহিদুজ্জামান। স্কুলের পরিচালক ও প্রধান শিক্ষক উম্মে রোমান জয়া স্বাগত সম্ভাষণ জানান।

সমস্ত আয়োজন পরিচালনা করেন শিশু সাহিত্যিক জসিম উদ্দিন জয়। আর মেলার সমন্বয় করেন স্কুলের ভাইস প্রিন্সিপাল অলক সরকার অপু।

মেলার সহযোগিতায় ছিল শিশু-কিশোর সংগঠন আগুনের ফুলকি, আনন্দ মাল্টিমিডিয়া, সিসিমপুর ও কিডম্যাট।

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০১৬
আইএ/এএসআর

** ফুলকি-বিজয় শিশুশিক্ষা মেলা শুরু বৃহস্পতিবার
** জমে উঠেছে ফুলকি-বিজয় ডিজিটাল শিশু শিক্ষামেলা

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৩, ২০১৬
আইএ/এএসআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa