ঢাকা, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪৩১, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৫

ইচ্ছেঘুড়ি

একুশের ভাস্কর্য: মোদের গরব

মীম নোশিন নাওয়াল খান, নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১২৪৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৬
একুশের ভাস্কর্য: মোদের গরব

ভাষাশহীদদের আত্মত্যাগের বিনিময়ে পাওয়া আমাদের বাংলা ভাষায় কথা বলার অধিকার। তাই ভাষাশহীদরা আমাদের কাছে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবেন।

আমরা কখনোই তাদের ভুলবো না, ভুলবো না তাদের আত্মত্যাগের কথা।

ভাষাশহীদদের আত্মত্যাগের কথা বাঙালির মনে চিরস্মরণীয় করে রাখতে নির্মিত হয়েছে ‘মোদের গরব’ ভাস্কর্যটি।

ঢাকার বাংলা একাডেমি ভবনের সামনে এ ভাস্কর্যটি অবস্থিত। ২০০৭ সালের ১ ফেব্রুয়ারি অমর একুশে গ্রন্থমেলায় এটি উদ্বোধন করা হয়।

‘মোদের গরব’ ভাস্কর্যে আমাদের ভাষা আন্দোলনের পাঁচ ভাষাশহীদ রফিক, শফিউর, সালাম, বরকত এবং জব্বারের ধাতব অবয়ব রয়েছে। এর পেছনে রয়েছে একটি উঁচু দেয়াল। মূর্তিগুলোর নিচে এবং দেয়ালে ভাষা আন্দোলনের বিভিন্ন ঘটনা চিত্রের মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। দেয়ালের দুই পাশে আছে টেরাকোটার নকশা।

বাংলা ভাষার জন্য যারা প্রাণ দিয়েছিলেন, তাদের আমরা কখনো ভুলবো না। বাংলা ভাষা যতদিন রবে, যতদিন রবে বাঙালি জাতি, ততদিন তারা বেঁচে থাকবেন প্রতিটি বাঙালির হৃদয়ে।

‘মোদের গরব’ ভাস্কর্যটি বাঙালির সেই প্রত্যয়ই দৃঢ় করে। ভাস্কর্যটি আমাদের বারবার স্মরণ করিয়ে দেয় বাংলার মর্যাদার কথা, বারবার মনে করিয়ে দেয়- ‘মোদের গরব মোদের আশা, আ মরি বাংলা ভাষা। ’

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৬
এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।