ঢাকা, শনিবার, ১৮ ফাল্গুন ১৪৩০, ০২ মার্চ ২০২৪, ২০ শাবান ১৪৪৫

ইচ্ছেঘুড়ি

জোনাকির আলো রহস্য

মীম নোশিন নাওয়াল খান, নিউজরুম এডিটর | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮২৮ ঘণ্টা, মে ৩১, ২০১৬
জোনাকির আলো রহস্য

সন্ধ্যার পর নেমেছে রাতের আঁধার। চাঁদটা লুকিয়েছে মেঘের আড়ালে।

ফুলের ঝোপে হঠাৎ এক দল সবুজ-সোনালি আলো দৌড়াদৌড়ি শুরু করল। একবার জ্বলছে, একবার নিভছে।

এই চমৎকার আলোর বলটা মূলত জোনাকি পোকা। জোনাকি পোকার নাম শোনেনি এমন মানুষ কম, তবে দালানকোঠার এই শহরে জোনাকি পোকা খুঁজে পাওয়া প্রায় অসম্ভব। তাই গ্রামের নিঝুম রাত যারা উপভোগ করেনি কখনও, তাদের কখনও দেখা হয়নি জোনাকির আলোর খেলা।

জোনাকির আলো দেখে কখনও হয়তো কারও মনে প্রশ্ন জাগে, কেন ওদের গা থেকে আলো জ্বলে? ছোটরা ভাবে জোনাকি হয়তো ম্যাজিক জানে।
আসলে কি ম্যাজিক জানে? কীভাবে ওদের গায়ে আলো জ্বলে?

মূলত জোনাকির শরীরে লুসিফেরিন নামক এক ধরনের রাসায়নিক পদার্থ থাকে। এদের শরীরে যখন বাতাস প্রবেশ করে, তখন বাতাসে থাকা অক্সিজেন এই লুসিফেরিনের সঙ্গে বিক্রিয়া করে আলো উৎপন্ন করে।

এই যে প্রক্রিয়াটার মাধ্যমে জোনাকি পোকা আলো জ্বালায়, এটাকে বলা হয় বায়োলুমিনেসেন্স। আরও একটা মজার কথা হলো, আমরা জানি আলো সাধারণত তাপ উৎপন্ন করে। কিন্তু জোনাকির আলো থেকে খুব সামান্য পরিমাণ তাপ উৎপন্ন হয়। সেজন্য জোনাকির আলোকে বলা হয় ‘ঠাণ্ডা আলো’।

জোনাকির আলোর রহস্য এটুকুই। এবার তুমিই বলো, জোনাকি ম্যাজিক জানে কিনা।

বাংলাদেশ সময়: ১৮২৫ ঘণ্টা, মে ৩১, ২০১৬
এএ

 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।