ঢাকা, রবিবার, ১ বৈশাখ ১৪৩১, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৪ শাওয়াল ১৪৪৫

আইন ও আদালত

নাটোরে অপহরণ-ধর্ষণ মামলায় একজনের ৬০ বছরের জেল

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২৪৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২৪
নাটোরে অপহরণ-ধর্ষণ মামলায় একজনের ৬০ বছরের জেল

নাটোর: জেলার নলডাঙ্গায় এক স্কুলছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণ মামলায় হাফিজুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তিকে ৬০ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে ৪০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

রোববার (২৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক (জেলা ও দায়রা জজ) মুহাম্মদ আব্দুর রহিম এ রায় ঘোষণা করেন। এ সময় আসামি আদালতে উপস্থিত ছিলেন।  

রায়ে একটি ধারায় ৩০ বছর কারাদণ্ডসহ ২০ হাজার টাকা জরিমানা এবং অন্য ধারায় ৩০ বছর কারাদণ্ডসহ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। অর্থাৎ দুটি ধারায় কারাদণ্ড ৬০ বছর, জরিমানা ৪০ হাজার টাকা।

দণ্ডপ্রাপ্ত হাফিজুল ইসলাম জেলার নলডাঙ্গা উপজেলার বাঙ্গালখলসী গ্রামের মৃত কিয়ামত আলীর ছেলে।  

মামলার আইনজীবী ও জজ কোর্টের পাবলিক প্রসিকিউটর অ্যাডভোকেট সিরাজুল ইসলাম বাংলানিউজকে জানান, ২০১৯ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর হাফিজুল ইসলাম একই গ্রামের সপ্তম শ্রেণীর এক স্কুলছাত্রীকে রাত সাড়ে ৮টার দিকে অপহরণের পর অজ্ঞাত এক স্থানে নিয়ে যান। এরপর সেখানে ওই স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ করেন।  

ওই ছাত্রীর বাবা অনেক খোঁজাখুঁজি করেও মেয়ের সন্ধান না পেয়ে পরদিন ১৪ সেপ্টেম্বর বাদী হয়ে হাফিজুলসহ তিনজনকে আসামি করে নলডাঙ্গা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। ১৯ সেপ্টেম্বর যশোর থেকে ওই ছাত্রীকে উদ্ধারসহ মূল আসামিকে গ্ৰেপ্তার করে পুলিশ।

পরে তদন্ত শেষে মামলায় পুলিশ হাফিজুল ইসলামকে একমাত্র আসামি করে আদালতে চার্জশিট দেয়। দীর্ঘ সাড়ে চার বছর পর মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে এ রায় ঘোষণা করেন বিচারক।  

বাংলাদেশ সময়: ২২৪২ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২৪
আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।