ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ বৈশাখ ১৪৩১, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫

আইন ও আদালত

চাচাকে গলা কেটে হত্যা, ভাতিজার মৃত্যুদণ্ড 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২৪
চাচাকে গলা কেটে হত্যা, ভাতিজার মৃত্যুদণ্ড 

কুমিল্লা: কুমিল্লার তিতাসে নবী হোসেন (৬৪) নামে এক ব্যক্তিকে গলা কেটে হত্যার দায়ে তার ভাতিজা আবদুল আউয়ালকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।  

মঙ্গলবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে কুমিল্লার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ চতুর্থ আদালতের বিচারক মো. জাহাঙ্গীর হোসেন রায় দেন।

আবদুল আউয়াল তিতাস উপজেলার জগতপুর ইউনিয়নের কৈয়ারপাড় গ্রামের আবদুর রবের ছেলে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, ২০২০ সালের ২৯ জানুয়ারি একটি মামলায় আবদুল আউয়ালকে তিতাস থানা পুলিশ গ্রেপ্তার করে। এতে আবদুল আউয়াল সন্দেহ করেন যে তার চাচা নবী হোসেনই তাকে পুলিশে ধরিয়ে দিয়েছেন। এর মধ্যে তিনি জামিনে বের হন। একই বছরের ২৪ মে নবী হোসেন বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। এসময় ওই সন্দেহের বশে আবদুল আউয়াল ধারালো অস্ত্র দিয়ে নবী হোসেনের গলায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে পালিয়ে যান। এ অবস্থায় স্থানীয়রা নবী হোসেনকে তিতাস উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় ওই দিনই নবী হোসেনের ছেলে রাসেল বাদী হয়ে আবদুল আউয়াল ও অজ্ঞাতনামা দুজনকে আসামি করে তিতাস থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম ২০২০ সালের ১৫ জুলাই আবদুল আউয়ালের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। রাষ্ট্রপক্ষে ১১ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে অভিযোগ প্রমাণ হওয়ায় আবদুল আউয়ালকে মৃত্যুদণ্ড দেন আদালত।

এ রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে রাষ্ট্রপক্ষের অতিরিক্ত কৌঁসুলি মো. মজিবুর রহমান বাহার বলেন, আশা করছি, হাইকোর্ট এ রায় বহাল রেখে শিগগিরই তা কার্যকর করবেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২৪
এসআই
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।