ঢাকা, রবিবার, ৯ আষাঢ় ১৪৩১, ২৩ জুন ২০২৪, ১৫ জিলহজ ১৪৪৫

আইন ও আদালত

নারী ক্রীড়াবিদকে ধর্ষণ: জুজুৎসু সাধারণ সম্পাদক নিউটন রিমান্ডে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৫৬ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০২৪
নারী ক্রীড়াবিদকে ধর্ষণ: জুজুৎসু সাধারণ সম্পাদক নিউটন রিমান্ডে

ঢাকা: নারী ক্রীড়াবিদকে ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বাংলাদেশ জুজুৎসু অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম নিউটনসহ দুইজনের একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রোববার (১৯ মে) বিকেলে শুনানি শেষে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসীম এ আদেশ দেন।

রিমান্ডে যাওয়া অপরজন হলেন- নিউটনের সহযোগী সুমাইয়া।

এদিন মামলাটির তদন্ত কর্মকর্তা শেরেবাংলা নগর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাকিল জোয়ার্দার আসামিদের আদালতে হাজির করে জিজ্ঞাসবাদের জন্য পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেন। আসামিপক্ষে আইনজীবী রিমান্ড বাতিল পূর্বক জামিন আবেদন করেন। শুনানি শেষে বিচারক তার একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।  

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, নিউটন গ্রেপ্তার হওয়া অপর এক নারী খেলোয়াড়ের সহায়তায় অন্য নারী খেলোয়াড়দের মিথ্যা প্রলোভন ও ভয় দেখিয়ে যৌন হয়রানিসহ জোরপূর্বক শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করতেন। ভিকটিম দুই বছর ধরে নিউটনের অধীনে জুজুৎসু খেলার প্রশিক্ষণ নিচ্ছিলেন। প্রশিক্ষণের সময় নিউটন বিভিন্ন অজুহাতে ভিকটিমকে শারীরিকভাবে হেনস্তা করেন। পরে প্র্যাকটিস শেষে চেঞ্জিং রুমে পোশাক পরিবর্তন করার সময় সহযোগী সুমাইয়া ভিকটিমকে রুমের মধ্যে আটকে রেখে নিউটনকে ডেকে আনলে নিউটন তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন। পরে সহযোগী সুমাইয়া রুমে প্রবেশ করে মোবাইল ফোনে ভিকটিমের নগ্ন ছবি ধারণ করেন এবং কাউকে জানালে নগ্ন ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেন। ওই ঘটনার পর নিউটন ভিকটিমের নগ্ন ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে রাজধানীর একটি ফ্ল্যাটে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেন।

এ ঘটনায় ভিকটিম মামলা দায়ের করলে নিউটন ও তার সহযোগী নারী খেলোয়াড় গ্রেপ্তার এড়াতে অবস্থান পরিবর্তন করে আত্মগোপন করেন। আত্মগোপনে থাকা অবস্থায় রাজধানীর শাহ আলী ও মিরপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করে র‍্যাব।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৬ ঘণ্টা, মে ১৯, ২০২৪
কেআই/আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।