ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৭ জিলহজ ১৪৪৩

আইন ও আদালত

স্কুলছাত্র হত্যায় ১৭ আসামির ৭ বছর করে কারাদণ্ড

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৪৮ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০২২
স্কুলছাত্র হত্যায় ১৭ আসামির ৭ বছর করে কারাদণ্ড

খুলনা: বহুল আলোচিত খুলনা পাবলিক কলেজের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র ফাহমিদ তানভীর রাজিন (১৪) হত্যা মামলায় ১৭ আসামিকে সাত বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

সোমবার (২৩ মে) দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-৩ ও শিশু আদালতের বিচারক মো. আব্দুস ছালাম খান এ রায় দেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলো- মঞ্জুরুল ইসলাম ওরফে সাব্বির হাওলাদার (১৬), বিএম মাজিব হাসান রয়েল (১২), শাহারিয়ার জামান তুর্য (১৭), রিয়ান শেখ ওরফে রেফাত (১২), ফাহিম ইসলাম মনি (১৪), সানি ইসলাম ওরফে আপন (১৩), জিসান খান (১৫), তারিন হাসান ওরফে রিজভী (১৩), শাকিব খান শিমুল (১৭), অন্তর কুসার দাস (১৫), মো. হাকিম (১৭), সৈকত (১৬), শেখ সাকিব (১৭), আসিফ প্রান্ত আলিফ (১৫), শেখ তামিম (১৬), সাকরান সালেহ ওরফে মিতুল (১২) ও মোস্তফিজুর রহমান নাঈম (১৪)। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, রাজিন মুজগুন্নী আবাসিক এলাকার ১১ নম্বর রোডের বাসিন্দা মো. ফারুক হোসেনের ছেলে। ২০১৮ সালের ২০ জানুয়ারি সন্ধ্যায় বাড়ি থেকে কনসার্ট দেখার জন্য কলেজের উদ্দেশে রওনা হয় সে। রাতে অনুষ্ঠানস্থলে বসাকে কেন্দ্র করে আসামি তামিমের সঙ্গে রাজিনের হাতাহাতি হয়। রাত ৯টার দিকে রাজিনকে অনুষ্ঠানের মঞ্চের পেছনে নিয়ে গিয়ে চড়-থাপ্পড় মারতে থাকে। এক পর্যায়ে সাব্বির বলে আমার কাছে চাকু আছে। অনেক দিন চাকুটি রক্ত খায় না। মামলার অন্যান্য আসামিরা রাজিনের হাত চেপে ধরে। আর সাব্বির চাকুটি রাজিনের পেটে ঢুকিয়ে দিলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। এরপর আসামিরা পালিয়ে যায়। গুরুতর আহত অবস্থায় রাজিনকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এরপর নিহতের বাবা বাদী হয়ে ছয় আসামির নাম উল্লেখসহ আরও অজ্ঞাত ১০ জনের নামে খালিশপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। একই বছরের ১৬ ফেব্রুয়ারি খালিশপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মিজানুর রহমান ১৭ জনের নামে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৭ ঘণ্টা, মে ২৩, ২০২২
এমআরএম/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa