ঢাকা, শনিবার, ৩০ চৈত্র ১৪৩০, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৩ শাওয়াল ১৪৪৫

লাইফস্টাইল

শীতে ঠোঁটের যত্ন নিন

লাইফস্টাইল ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২৪
শীতে ঠোঁটের যত্ন নিন

জাঁকিয়ে শীত পড়েছে, ইতোমধ্যেই ঠোঁট ফাটতে শুরু করেছে। লিপস্টিক পরেও ঠোঁটের ফাটল আড়াল করা যায় না।

এই সময়ে ঠোঁট একটু বাড়তি যত্ন চায়। পর্যাপ্ত যত্ন নিলে শীতেও ঠোঁটে থাকবে বসন্তের কোমললতা। শরীরের অন্যতম স্পর্শকাতর একটি অংশ হলো ঠোঁট। ফলে যত্নে না রাখলে ঠোঁটের চামড়া অতিরিক্ত পরিমাণে শুষ্ক হয়ে যায়। ত্বকের মতোই অনেকেই ঠোঁটের যত্ন নিতেও ভরসা রাখেন বাজারচলতি প্রসাধনীর উপর। তাতে আবার হিতে বিপরীত হয়। বরং ঠোঁটের যত্ন নিতে ভরসা রাখতে পারেন কয়েকটি ঘরোয়া টোটকার ওপর।  

ঠোঁটের যত্নে অনেকেই পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করেন। তবে শুধু পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করলে হবে না। পেট্রোলিয়াম জেলির সঙ্গে খানিকটা মধু মিশিয়ে নিতে পারেন। তার পর তুলো দিয়ে সারা ঠোঁটে বুলিয়ে নিন। এতে কোমল হবে ঠোঁট।

গ্লিসারিন তো ত্বকের যত্নে অনেকেই ব্যবহার করেন। তবে গ্লিসারিন ঠোঁটেও ব্যবহার করতে পারবেন। গ্লিসারিনের সঙ্গে অল্প অলিভ অয়েল মিশিয়ে ঠোঁটে মাখতে পারেন। ময়েশ্চারাইজ়ারের কাজ করবে।

শীতে অতিরিক্ত ঠোঁট ফাটার প্রবণতা রয়েছে অনেকেরই। সেক্ষেত্রে চালের গুঁড়ার সঙ্গে অল্প জল মিশিয়ে ১৫ থেকে ২০ মিনিট এই মিশ্রণ ঠোঁটে লাগিয়ে রাখুন। এতে ঠোঁটের মরা চামড়া উঠে আসবে সহজেই।
শুষ্ক ঠোঁটের সমস্যা এড়াতে ভরসা হতে পারে তিলের তেল। তিলে থাকা নানা স্বাস্থ্যকর উপাদান ভেতর থেকে যত্ন নেয় ঠোঁটের। ঠোঁট মসৃণ এবং মোলায়েম রাখতে সত্যিই দারুণ উপকারী এটি।

যা করবেন না আর যা করবেন

ঠোঁটের সুরক্ষায় কী কী করবেন তা জানার আগে জেনে নিন কী কী করা যাবে না। ঠোঁট সজীব রাখতে অভ্যাসবশত বারবার জিভ দিয়ে ঠোঁট ভেজাবেন না। এতে ঠোঁট আরও শুকিয়ে যায়। এর বদলে সঙ্গে একটা লিপ-বাম বা লিপ-জেল রাখুন এবং ঠোঁট শুকনো লাগলেই একটু মেখে নিন। আর হাত-মুখ ধোয়ার সময় বা দাঁত মাজার সময় কোনোভাবেই যাতে ঠোঁটে জোরে জোরে ঘষা-মাজা না লাগে তা খেয়াল রাখা দরকার। এ সময় নরম ঠোঁটে আঁচড় পড়লে তা ভোগাতে পারে। এছাড়া শীতকালে ম্যাট ধরনের লিপস্টিক ব্যবহার না করাই ভালো। কেননা, শীতে ম্যাট লিপস্টিকে ঠোঁট দু’খানা আরও প্রাণহীন মনে হতে পারে। শীতে গ্লসওয়ালা লিপস্টিকই ঠোঁট সজীব রাখবে এবং এতে আপনার সাজও প্রাণবন্ত লাগবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৩, ২০২৪
এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।