ঢাকা, রবিবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ মে ২০২৪, ১০ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

একাত্তরের কথা রাখতে রেলমন্ত্রী যাচ্ছেন স্মৃতিবিজড়িত ষোলটাকায়

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১১৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ১২, ২০২৪
একাত্তরের কথা রাখতে রেলমন্ত্রী যাচ্ছেন স্মৃতিবিজড়িত ষোলটাকায়

মেহেরপুর: ১৯৭১ সাল। এদেশের স্বাধীনতাকামী মুক্তিযোদ্ধারা পাক হানাদারদের বিরুদ্ধে সারাদেশে প্রতিরোধ গড়ে তোলে দেশের বিভিন্ন স্থানে যুদ্ধ করেন।

সে সময় জিল্লুল হাকিম (বর্তমান রেল মন্ত্রী) পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতে প্রশিক্ষণে যাওয়ার প্রাক্কালে তৎকালীন কুষ্টিয়ার গাংনী উপজেলার ষোলটাকা গ্রামে এসে আশ্রয় নেন।  

বেশ কয়েকদিন এখানে অবস্থান করায় স্থানীয় কিছু মানুষের সঙ্গে তার হৃদ্যতা গড়ে উঠে বর্তমান রেলমন্ত্রী জিল্লুল হাকিমের। পরে ভারতে যাওয়ার সময় তিনি কথা দিয়েছিলেন প্রাণে বেঁচে থাকলে আবারও এই মানুষগুলোর সঙ্গে দেখা করতে আসবেন তিনি।

স্বাধীনতা যুদ্ধের প্রায় ৫৩ বছর পার হয়েছে। ষোলটাকা গ্রামের আশ্রয়দাতা সেই নাসির উদ্দিন ও স্থানীয় মানুষগুলোকে ভুলে যাননি জিল্লুল হাকিম। তিনি বর্তমান সরকারের রেলমন্ত্রী নিযুক্ত হয়েছেন। এবার সেই গ্রামের ক্ষণিকের আপনজনগুলোর সঙ্গে স্মৃতিচারণ করতেই ষোলটাকা গ্রামে ছুটে আসছেন তিনি।

শুক্রবার (১২ এপ্রিল) দুপুর ৩টার সময় ষোলটাকা গ্রামে পৌঁছাবেন রেলমন্ত্রী। রেলমন্ত্রীর আগমনকে কেন্দ্র করে এলাকার মানুষের মধ্যেও খুশির আমেজ বিরাজ করছে।  

এ সময় রেলমন্ত্রীর সঙ্গে জনপ্রশাসন মন্ত্রী ফরহাদ হোসেন এমপি, মেহেরপুর জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারসহ জেলার অন্যান্য নেতারা উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে।

রেলপথ মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব ও রেলমন্ত্রীর একান্ত সচিব মোহাম্মদ রফিকুল ইসলাম স্বাক্ষরিত এক প্রেসনোটে জানা গেছে, শুক্রবার বিকেল ৩টার সময় মেহেরপুর জেলায় মুক্তিযুদ্ধকালীন রণাঙ্গনের স্মৃতি বিজড়িত স্থান গাংনী উপজেলার ষোলটাকা গ্রাম পরিদর্শন করবেন রেলমন্ত্রী। এ সময় ষোলটাকা গ্রামের লোকজনের খোঁজখবর নেবেন ও মুক্তিযুদ্ধচলাকালিন সময়ের স্মৃতিচারণ করবেন তিনি।

এর আগে ১২টার সময় মেহেরপুর জেলা সার্কিট হাউজে উপস্থিতি হবেন এবং স্থানীয় মসজিদে পবিত্র জুম্মার নামাজ আদায় করবেন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ১১১৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ১২, ২০২৪
এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।