ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৩ মে ২০২৪, ১৪ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

ভাতিজাদের সালামি দেওয়ায় স্ত্রীর দায়ের কোপে হাসপাতালে স্বামী

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৩, ২০২৪
ভাতিজাদের সালামি দেওয়ায় স্ত্রীর দায়ের কোপে হাসপাতালে স্বামী

লালমনিরহাট: জেলার হাতীবান্ধা উপজেলায় ভাতিজাদের ঈদ সালামি দেওয়ায় স্ত্রীর দায়ের কোপে তাইজুল ইসলাম (৩২) নামে এক যুবক জখম হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (১১ এপ্রিল) ঈদের দিন উপজেলার নওদাবাস ইউনিয়নের চৌপুতি বটতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

তিনি ওই এলাকার মকবুল হোসেনের ছেলে।

অভিযোগে জানা গেছে, যুবক তাইজুল ইসলাম ঈদের দিন সকালে তার ভাতিজাদের ২০ টাকা করে ঈদ সালামি দিতে থাকেন। এ সময় তার স্ত্রী রাশেদা বেগম ২০ টাকার পরিবর্তে ১০ টাকা দিতে বলেন। এ নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে তর্ক শুরু হয়। এক পর্যায়ে রাশেদা বেগম ক্ষিপ্ত হয়ে দা দিয়ে তার স্বামী তাইজুল ইসলামকে কোপ দেন। এতে তাইজুলের ঘাড়ের নিচে কেটে যায়।

পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে প্রথমে হাতীবান্ধা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পরে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করান। শনিবার সেখানকার চিকিৎসকরা তাইজুলকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। এ ঘটনায় তাইজুল বাদী হয়ে হাতীবান্ধা থানায় স্ত্রীর বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন।

তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে তাইজুলের স্ত্রী রাশেদা বেগম বলেন, আমার স্বামী আমাকে ওই দা নিয়ে আঘাত করার চেষ্টা করলে আমি বাঁধা দেই। এতে ওই দা আমার স্বামীর ঘাড়ের নিচে লাগে।

হাতীবান্ধা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) নির্মল চন্দ্র রায় জানান, অভিযোগের আলোকে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৮ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৩, ২০২৪
এসআইএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।