ঢাকা, সোমবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৭ মে ২০২৪, ১৮ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

পালানোর চেষ্টা, মোটরসাইকেলের ধাক্কায় পুলিশ সদস্য আহত

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৯, ২০২৪
পালানোর চেষ্টা, মোটরসাইকেলের ধাক্কায় পুলিশ সদস্য আহত

চুয়াডাঙ্গা: চুয়াডাঙ্গায় ভ্রাম্যমাণ আদালত চলাকালে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় পুলিশের এক সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আহত হয়েছেন। মোটরসাইকেলে থাকা তিন কিশোরও আহত হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১৮ এপ্রিল) বিকেলে সদর উপজেলার হাতিকাটা মোড়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে। আহত এএসআই রতন ইসলাম চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। মোটরসাইকেলে থাকা কিশোরদের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে মুচলেকা নিয়ে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মোবাইল কোর্টের দায়িত্বপ্রাপ্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম সাইফ জানান, তিন কিশোর এক মোটরসাইকেলে চুয়াডাঙ্গা থেকে দ্রুতগতিতে মেহেরপুরের দিকে যাচ্ছিল। ওই সময় সদর উপজেলার হাতিকাটা মোড়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের কার্যক্রম চলছিল।  

দায়িত্বরত এক পুলিশ সদস্য দ্রুতগামী মোটরসাইকেলের চালককে থামতে সংকেত দেন। তা দেখে তারা মোটরসাইকেলের গতি বাড়িয়ে আরও দ্রুত পালানোর চেষ্টা করে। এ সময় দায়িত্বরত এএসআই রতন ইসলাম মোটরসাইকেলের ধাক্কায় ছিটকে পড়ে আহত হন। মোটরসাইকেলে থাকা তিনজনও রাস্তার পাশে পড়ে আহত হয়। আহতদের চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

তিনি জানান, মোটরসাইকেলে থাকা আহতরা সবাই মেহেরপুর জেলার পিরোজখালি গ্রামের বাসিন্দা। তারা হলো, সমির আলীর ছেলে মাহফুজ, নাসির আলীর ছেলে শাহিন ও আরিফুল ইসলামের ছেলে তারিকুল ইসলাম। তাদের বয়স ১৪ থেকে ১৭ বছরের মধ্যে।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. কবির হোসেন আহত পুলিশ সদস্যকে দেখতে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে যান।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাইফুল ইসলাম সাইফ জানান, মোটরসাইকেলের আরোহীরা অপ্রাপ্তবয়স্ক হওয়ায় তাদের অভিভাবকদের মুচলেকা নেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে অভিভাবকদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ০০৫২ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৮, ২০২৪
আরএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।