ঢাকা, রবিবার, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৯ মে ২০২৪, ১০ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

নাফ নদীতে বাংলাদেশিদের ওপর গুলি চালালো মিয়ানমারের নৌ সেনারা, গুলিবিদ্ধ দুই

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৪৬ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪
নাফ নদীতে বাংলাদেশিদের ওপর গুলি চালালো মিয়ানমারের নৌ সেনারা, গুলিবিদ্ধ দুই প্রতীকী ছবি

কক্সবাজার: সাগরে মাছ ধরে ফেরার পথে মিয়ানমারের জাহাজ থেকে ছোড়া গুলিতে দুই বাংলাদেশি জেলে আহত হয়েছেন।  

আহতদের একজনকে টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে।

 অপরজনকে গুরুতর অবস্থায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।

আহত জেলেরা হলেন - কক্সবাজারের টেকনাফের শাহপরীর দ্বীপের উত্তর পাড়ার আলী আহমদের ছেলে মোহাম্মদ ইসমাইল (২০) ও দক্ষিণ পাড়ার সিদ্দিক আহমদের ছেলে মোহাম্মদ ফারুক (২৫)।

রোববার (২১ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বঙ্গোপসাগর ও নাফনদীর মোহনাস্থ নাইকংদিয়া এলাকায় এই গুলি বষর্ণের ঘটনা ঘটে।  

তবে এ ঘটনা নিয়ে এখন পর্যন্ত বিজিবি ও কোস্টগার্ডের কোনো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন টেকনাফ থানার ওসি মুহাম্মদ ওসমান গণি।

তিনি জানিয়েছেন, এফবি মায়ের দোয়া নামের একটি ফিশিং ট্রলার সাগর থেকে মাছ ধরে কূলে ফেরার সময় মিয়ানমারের একটি জাহাজ থেকে গুলি ছোড়া হয়। এতে ২ জন আহত হয়েছেন। আহতদের প্রথমে টেকনাফ হাসপাতালে আনা হলে একজনকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

টেকনাফ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল কর্মকর্তা ডা. সুমাইয়া নাসনিন জানান, আহতদের মধ্যে ইসমাইল সামান্য আহত। তাকে টেকনাফে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। অপরজন ফারুকের ৩টি গুলি লেগেছে। হাত ও পায়ে লাগা গুলিতে গুরুতর হওয়ায় তাকে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।

আহত জেলে মোহাম্মদ ইসমাইল জানান, চার দিন আগে ‘এফবি মায়ের দোয়া’ ট্রলারে ৯ জন মাঝি-মাল্লা নিয়ে সাগরে মাছ ধরতে যান তিনি। রোববার ফেরার পথে সাগরে মিয়ানমারের নৌ বাহিনীর একটি জাহাজ সংকেত দিয়ে তাদের দিকে যেতে বলেন। ওটা মিয়ানমারের জলসীমা হওয়ায় তারা শাহপরীর দ্বীপের দিকে চলে আসতে থাকেন। এসময় লাগাতার গুলি বর্ষণ করা হয় ওই জাহাজ থেকে। এতে তারা ২ জন গুলিবিদ্ধ হন। অন্যরা অক্ষত রয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১,২০২৪
এসবি/এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।