ঢাকা, সোমবার, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৭ মে ২০২৪, ১৮ জিলকদ ১৪৪৫

জাতীয়

বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের ক্ষমতা বাড়ানো দরকার: বিচারপতি নিজামুল হক

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮১২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪
বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের ক্ষমতা বাড়ানো দরকার: বিচারপতি নিজামুল হক

সিলেট: বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. নিজামুল হক নাসিম বলেছেন, সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে কোনো মামলা নেওয়ার বেলায় আগে প্রেস কাউন্সিলের অনুমতি নেওয়া দরকার। প্রেস কাউন্সিলের ক্ষমতা বাড়ানো দরকার।

অন্তত; জরিমানা করার ক্ষমতা দিতে হবে। তখন মানুষের ভরসা থাকবে এবং অভিযোগ নিয়ে আসলে বিচারপ্রার্থীও সন্তুষ্ট থাকবেন।

প্রেস কাউন্সিলের ক্ষমতা বাড়ানো সম্পর্কে তিনি বলেন, সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে কোনো মামলা হলে না জানিয়ে গ্রেপ্তার করা হয়, আদালতে নিয়ে যাওয়া হয়। এ জন্য সাংবাদিকদের হয়রানির শিকার হতে হয়। সে ক্ষেত্রে মামলা দিতে হলে প্রেস কাউন্সিলের অনুমতি নিতে হবে। তখন অহেতুক কেউ মামলা দিতে পারবে না। অন্তত এ ক্ষমতা থাকা প্রয়োজন প্রেস ক্লাউন্সিলের থাকা উচিত, এ সংক্রান্ত সুপারিশও পাঠানো হয়েছে। নয়তো বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটি কেবল দন্তহীন বাঘ হিসেবে আখ্যা দেন তিনি।

রোববার (২১ এপ্রিল) সিলেট সার্কিট হাউজ কনফারেন্স হলে সিলেট জেলার প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সাংবাদিকদের অংশগ্রহণে আয়োজিত গণমাধ্যমে হলুদ সাংবাদিকতা প্রতিরোধ ও বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা শীর্ষক প্রশিক্ষণ কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের আয়োজনে ও সিলেট জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় এ প্রশিক্ষণ কর্মশালার আয়োজন করা হয়।

তিনি বলেন, এশিয়ায় প্যাসিফিক অঞ্চলে এ আইন সর্বপ্রথম বাংলাদেশে হয়েছে। ১৯৭৪ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি বঙ্গবন্ধু সাংবাদিকদের জন্য প্রেস কাউন্সিল করেছিলেন। এরআগে ভারত মালেশিয়ায়ও হয়নি। সাংবাদিকদের জন্য বঙ্গবন্ধুর চিন্তাধারা ছিল সুদূরপ্রসারী।

প্রশিক্ষণের প্রথম সেশনে সাংবাদিকতার নীতিমালা এবং প্রেস কাউন্সিল প্রণীত আচরণবিধির ওপর রিসোর্স পার্সন হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের সচিব শ্যামল চন্দ্র কর্মকার।

সভাপতির বক্তব্য দেন সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক হোসাইন মোহাম্মদ আল জুনায়েদ, বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) সম্রাট তালুকদার।

উন্মুক্ত আলোচনায় বক্তব্য রাখেন-সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি হাসিনা বেগম চৌধুরী, প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকবাল সিদ্দিকী, নবনির্বাচিত সভাপতি ইকরামুল কবীর, সিলেট জেলা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও বাংলাটিভির বিশেষ প্রতিনিধি আল আজাদ, সিলেট প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম, সিলেট অন লাইন প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহিত চৌধুরী, দৈনিক সমকালের ব্যুরো প্রধান মুকিত রহমানী, বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম-এর সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট নাসির উদ্দিন ও দৈনিক জালালাবাদের সিনিয়র রিপোর্টার মুহিবুর রহমান।

এরপর অতিথিরা কর্মশালায় অংশ নেওয়া সাংবাদিকদের হাতে সনদ তুলে দেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮১২ ঘণ্টা, এপ্রিল ২১, ২০২৪
এনইউ/জেএইচ 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।