ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৩০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১৩ জুন ২০২৪, ০৫ জিলহজ ১৪৪৫

জাতীয়

‘অপরিপক্ব আম নামিয়ে বাজারজাত করলে কঠোর ব্যবস্থা’

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫৫৬ ঘণ্টা, মে ২০, ২০২৪
‘অপরিপক্ব আম নামিয়ে বাজারজাত করলে কঠোর ব্যবস্থা’

রাজশাহী: অপরিপক্ব আম নামিয়ে রাসায়নিক দিয়ে বাজারজাত করলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর। এছাড়া অধিক মুনাফার আশায় মানুষকে ওজন বা পরিমাপে কম দেওয়া চরম অপরাধ বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

কেউ যেন বেশি লাভের আশায় ওজনে কম না দেন সে বিষয়ে সতর্ক করেন বিভাগীয় কমিশনার।

সোমবার (২০ মে) বিশ্ব মেট্রোলজি দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য হচ্ছে- ‘টেকসই ভবিষ্যৎ বিনির্মাণে আজকের পরিমাপ’। সারা দেশের মতো রাজশাহীতে দিবসটি যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপিত হয়।

দিবসটি উপলক্ষে সোমবার সকালে বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস অ্যান্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই) এর রাজশাহী বিভাগীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সভায় বিভাগীয় কমিশনার ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর বলেন, পৃথিবীতে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো সময় এবং মানুষের সেবা করা। সব ধর্মেই এর গুরুত্ব অপরিসীম। আমরা সেবা করতে গিয়ে অনেক সময় অধিক মুনাফার আশায় মানুষকে ওজন বা পরিমাপে কম দেই, যেটা চরম অপরাধ। মানুষ অনেক কষ্ট করে টাকা উপার্জন করেন। সেই কষ্টের টাকা আমরা কোনোভাবেই বিনষ্ট হতে দেব না।

ড. হুমায়ূন কবীর বলেন, আম পরিপক্ব হওয়ার আগে নামিয়ে মানবদেহের জন্য ক্ষতিকারক রাসায়নিক ব্যবহার করে বাজারজাত হয়। এতে মানুষের চরম ক্ষতি হচ্ছে। এটা বিএসটিআই বা প্রশাসনের পক্ষে একা নির্মূল করা সম্ভব না। আপনাদের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। আপনাদের বাড়ির আশেপাশে যদি এ ধরনের ঘটনা ঘটে তবে আমাদের জানান, আমরা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেব।

তিনি আরও বলেন, ফলে বা খাবারে রাসায়নিক ব্যবহারের ফলে একদিকে যেমন পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে, অপরদিকে যিনি ব্যবহার করছেন তার ইহকাল পরকাল সবই নষ্ট হচ্ছে। এ থেকে আমাদের সবাইকে বিরত থাকতে হবে।

এ সময় সভায় অংশগ্রহণকারীদের বিভিন্ন অভিযোগ সমাধানের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন বিভাগীয় কমিশনার।

বিএসটিআই এরর উপপরিচালক ইঞ্জিনিয়ার সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় র‌্যাব-৫ এর অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মো. মুনীম ফেরদৌস, রাজশাহী চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি মাসুদুর রহমান রিংকু, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক ড. আরিফুল ইসলাম নাহিদ বক্তৃতা দেন।

সভায় বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৫৪ ঘণ্টা, মে ২০, ২০২৪
এসএস/এফআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।