ঢাকা, বুধবার, ২৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ১২ জুন ২০২৪, ০৪ জিলহজ ১৪৪৫

জাতীয়

তরুণীর সঙ্গে অন্তরঙ্গ ছবি ফাঁস, বিচার দাবি কলেজছাত্রের

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬০৬ ঘণ্টা, মে ২২, ২০২৪
তরুণীর সঙ্গে অন্তরঙ্গ ছবি ফাঁস, বিচার দাবি কলেজছাত্রের প্রতীকী

রাজশাহী: রাজশাহীতে তরুণ-তরুণীর অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ফাঁস করে দেওয়া হয়েছে। ফেসবুক আইডি হ্যাক করে কেউ এসব ছবি নিয়ে ফাঁস করেছে বলে অভিযোগ করেছেন ওই কলেজছাত্র।

সামাজিকভাবে এভাবে হেয় করায় তিনি সংবাদ সম্মেলন করে বিচার দাবি করেছেন।

ভুক্তভোগী এই তরুণ রাজশাহী কলেজের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী। বুধবার (২২ মে) দুপুরে রাজশাহী সাংবাদিক ইউনিয়ন কার্যালয়ে তিনি সংবাদ সম্মেলন করে এ ঘটনার বিচার দাবি করেন। ভুক্তভোগী ওই তরুণীও তার সঙ্গে এসেছিলেন।

তারা জানান, তাদের মধ্যে তিন বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক আছে। পারিবারিকভাবে তাদের বিয়েও ঠিক হয়ে আছে। গত ২০ মে একটি ফেসবুক আইডি থেকে তাদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবি ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এতে তারা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছেন। তার ব্যবহৃত স্মার্টফোন অন্যজনের কাছে বিক্রির পর তারা এমন ঘটনার শিকার হন।

ভুক্তভোগী তরুণ বলেন, তিনি ‘আরিফ কেমিস্ট্রি’ নামে শহরের একটি কোচিং সেন্টারের ব্যবস্থাপক ছিলেন। মাসখানেক আগে তিনি সেই চাকরি ছেড়ে দিয়েছেন। এই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে এখন তার কোনো সম্পর্ক নেই। কিন্তু ফেসবুক পোস্টে ছবি প্রকাশ করে আরিফ কেমিস্ট্রির পরিচালক আরিফুল ইসলাম আরিফকেও জড়িয়ে দেওয়া হয়েছে, যা পুরোপুরি মিথ্যা। তার ব্যক্তিগত বিষয়কে কোচিং সেন্টারের সঙ্গে সম্পৃক্ত করে দেওয়া হচ্ছে। আর এ থেকেই বোঝা যায় কোচিং সেন্টারটির সুনাম ক্ষুণ্ন করতে কেউ উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে তাদের ছবি ছড়িয়েছে।

তিনি জানান, প্রথম দফায় তার ছবি প্রকাশের পর তার মোবাইলে একটি কল এসেছিল। অচেনা এক ব্যক্তি সমস্যা সমাধানের জন্য তার সঙ্গে যোগাযোগের পরামর্শ দেন। যোগাযোগ না করলে আরও ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেন ওই ব্যক্তি।

এ ব্যাপারে আইনগত সহায়তা পেতে ভুক্তভোগী তরুণ মঙ্গলবার মহানগরের বোয়ালিয়া থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। বুধবার সংবাদ সম্মেলনে তিনি জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান।

জানতে চাইলে বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হুমায়ুন কবীর বলেন, এটি একটি সাইবার অপরাধ। পুলিশের তথ্য-প্রযুক্তি বিভাগ ওই জিডির তদন্ত করছে। তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৫ ঘণ্টা, মে ২২, ২০২৪
এসএস/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।