ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ আষাঢ় ১৪২৯, ০৫ জুলাই ২০২২, ০৫ জিলহজ ১৪৪৩

জাতীয়

ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী, থানায় মামলা 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪০১ ঘণ্টা, মে ১৭, ২০২২
ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা স্কুলছাত্রী, থানায় মামলা  অভিযুক্ত সাব্বির হোসেন বাপ্পী

নেত্রকোনা: নেত্রকোনার মদন উপজেলায় ধর্ষণের শিকার এক স্কুলছাত্রী  (১৪) এখন সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা। ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে আদালতে এফিডেভিট করে বিয়ের নাটক করেছে অভিযুক্তের পরিবার।

বিয়ের এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই ওই স্কুলছাত্রীকে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর বাবা বাদী হয়ে সোমবার (১৬ মে) রাতে সাব্বির হোসেন বাপ্পীকে (২১) কে প্রধান আসামি করে মদন থানায় মামলা দায়ের করেছেন।  অভিযুক্ত সাব্বির হোসেন নেত্রকোনার মদন উপজেলার কাইটাল ইউনিয়নের পশ্চিম পাড়া গ্রামের হিরন মিয়ার ছেলে।  

স্থানীয় লোকজন ও মামলা সূত্রে জানা গেছে, বাড়রী গ্রামের হিরণ মিয়ার ছেলে সাব্বির হোসেন বাপ্পীর কেন্দুয়া কলেজের একাদশ শ্রেনীর শিক্ষার্থী। দেড় বছর আগে সাব্বিরের ওই স্কুল ছাত্রীর সঙ্গে বাপ্পীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। পরে ওই স্কুল ছাত্রীকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন সাব্বির। এক পর্যায়ে স্কুল ছাত্রীর শারিরীক অবস্থার পরিবর্তন ঘটলে বিষয়টি নজরে আসে তার পরিবারের লোকজনের। পরে পরিবারের লোকজন ডাক্তারি পরীক্ষা করে জানতে পারেন সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্কুল ছাত্রী । এ ঘটনা জানাজানি হলে বাপ্পীর পরিবারের লোকজনকে আদালতের মাধ্যমে এফিডেভিট করে ওই মেয়ের সঙ্গে তার বিয়ে দেয়।   বিয়ের এক সপ্তাহ যেতে না যেতেই ছেলেকে বাড়ি থেকে সরিয়ে স্কুলছাত্রীকে তাড়িয়ে দেয় অভিযুক্তের পরিবার।  

এ ব্যাপারে ভুক্তভোগী স্কুল ছাত্রীর বাবা বলেন, আমার মেয়ে তার নানার বাড়িতে যাওয়া-আসার পথে প্রেমের প্রস্তাব দিতেন সাব্বির। প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় জোরপূর্বক আমার মেয়েকে ধর্ষণ করেছে। বর্তমানে সে সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা। আমি এর বিচার চাই।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মদন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ ফেরদৌস আলম বলেন, স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। হিরণ নামে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫৭ ঘণ্টা, ১৭ মে, ২০২২
ইআর 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa