ঢাকা, শুক্রবার, ৬ বৈশাখ ১৪৩১, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯ শাওয়াল ১৪৪৫

অফবিট

নারী থেকে পুরুষ হতে গিয়ে ট্রান্সজেন্ডার জানলেন, তিনি ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৫৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২৪
নারী থেকে পুরুষ হতে গিয়ে ট্রান্সজেন্ডার জানলেন, তিনি ৫ মাসের অন্তঃসত্ত্বা  প্রতীকী ছবি

ট্রান্সজেন্ডার পুরুষ তিনি। দেহ নারীর হলেও, মন থেকে তিনি পুরুষ।

তাই শারীরিকভাবেই নারী থেকে পুরুষ হতে ব্যাকুল ছিলেন। সেজন্য অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে স্তনও অপসারণ করান।  

এরপর যখন জরায়ু অপসারণের জন্য চিকিৎসকের কাছে গেলেন তখন জানতে পারেন, পাঁচমাসের অন্তঃসত্ত্বা তিনি।

সম্প্রতি অবাক করা ঘটনাটি ঘটেছে ইতালিতে। লা রিপাব্লিকা নামে দেশটির স্থানীয় সংবাদমাধ্যমের বরাতে মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) এ খবর জানিয়েছে মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) মাকির্ন সংবাদমাধ্যম নিউইয়র্ক পোস্ট

প্রতিবেদনে ওই ট্রান্সজেন্ডারের নাম ‘মার্কো’ বলা হয়েছে।

অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার পর কি মার্কো তার জেন্ডার থেরাপিসহ পুরুষে রূপান্তর হতে সব কার্যক্রম চালিয়ে যাবেন?

এ প্রশ্নের জবাবে মার্কোর চিকিৎসক এন্ডোক্রিনোলজিস্ট ড. জিউলিয়া সেনোফন্টের জানিয়েছেন, এ মুহূর্তেই মার্কোকে থেরাপি বন্ধ করতে হবে। নাহলে গর্ভে থাকা সন্তানের ক্ষতি হয়ে যাবে। ভ্রূণ ঝুঁকির মধ্যে পড়বে।  

এ থেরাপি বিশেষজ্ঞ আরও বলেন, মার্কো থেরাপি বন্ধ করলে এর ভয়ঙ্কর প্রভাব পড়তে পারে শিশুর ওপর। বিশেষ করে গর্ভাবস্থার প্রথম ত্রৈমাসিকে, যা শিশুর বিকাশের জন্য সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ সময়।  

তিনি যোগ করেন, আসলে এ বিষয়ে নিশ্চিতভাবে বলা কঠিন। কারণ এর সবই নির্ভর করে মার্কোর টেসটোসটেরনের ডোজ স্থগিত করার সময়কালের ওপর।

অবশ্য রূপান্তরকামী মার্কোও সেটাই চান। তার রূপান্তর স্থগিত করেছেন। সন্তানকে পৃথিবীর মুখ দেখানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মার্কো। গর্ভের সন্তানের যাতে কোনোরূপ ক্ষতি না হয় সেজন্য সব ধরনের থেরাপি বন্ধ করে দিয়েছেন।  

এছাড়া তিনি আরও জানতে চেয়েছেন, জেন্ডার থেরাপির জন্য যেসব ওষুধ তিনি নিয়েছিলেন এরইমধ্যে, সেগুলোর কোনো বিরূপ প্রভাব তার সন্তানের ওপর পড়েছে কি না।

বিশেষজ্ঞরা তাকে নিশ্চিত করেছেন, ওষুধগুলো গর্ভে বেড়ে উঠতে থাকা ভ্রূণের ওপর কোনো খারাপ প্রভাব ফেলবে না।

প্রশ্ন উঠেছে, নিজেকে পুরুষ ভাবতে থাকা নারী যিনি একটি রুপান্তরের প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে যাচ্ছিলেন তিনি কীভাবে অন্তঃসত্ত্বা হলেন? 

এ বিষয়ে টাইমস অফ লন্ডনের মতে, হরমোন থেরাপি মাসিকচক্রকে বাধা দেয় তবে এটি গর্ভনিরোধক নয়। প্রসূতির জরায়ুতে ডিম্বস্ফোটন ঘটতে পারে এই থেরাপি চলাকালীনও। এক্ষেত্রে যারা রুপান্তর নিয়ে কাজ করছেন তারা গর্ভনিরোধক বড়িগুলি সুপারিশ করেন, যা হরমোন থেরাপির সময় ব্যবহার করা যেতে পারে।

লা রিপাবলিকা জানিয়েছে, জন্মদানের পর আইনগতভাবে সন্তানের বাবা হিসেবে নিবন্ধিত হতে চান মার্কো। সেই অর্থে তখন শিশুটির বাবা ও মা দুটোই হবেন তিনি।  

মার্কোর ঘটনায় রক্ষণশীল ক্যাথলিক ফাউন্ডেশন প্রো ভিটা ই ফ্যামিগ্লিয়ার সভাপতি টনি ব্র্যান্ডি বলেছেন, এই ঘটনা একজন নারী যে শুধুই একজন নারী সেটিই প্রমাণ করে। জেন্ডার ফ্লুইডিটি থিওরিটি পাগলামি ছাড়াই কিছুই নয়। এটি বিজ্ঞানের বিরুদ্ধে এবং এটি প্রকৃতিরও বিরুদ্ধে। তিনি আশা করেন মার্কো স্থায়ীভাবে তার থেরাপি বন্ধের সিদ্ধান্ত নেবেন।
 
বাংলাদেশ সময়: ২০৪৬ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২৫, ২০২৪
এসএএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।