ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩০ মে ২০২৪, ২১ জিলকদ ১৪৪৫

অফবিট

মজুরি চাওয়ায় শ্রমিকের পেছনে সিংহ লেলিয়ে দেন তিনি! 

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯১২ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০১৯
মজুরি চাওয়ায় শ্রমিকের পেছনে সিংহ লেলিয়ে দেন তিনি! 

ঘাম শুকানোর আগেই শ্রমিকের মজুরি মিটিয়ে দেওয়ার কথা বলা হয়ে থাকে। অথচ সম্প্রতি প্রাপ্য মজুরি চাওয়ায় শ্রমিকের পেছনে পোষা সিংহ লেলিয়ে দিয়েছেন এক ব্যক্তি। 

যুক্তরাজ্যভিত্তিক সংবাদমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্টের এক প্রতিবেদনে এ ঘটনার কথা জানা যায়। এতে বলা হয়, গত সপ্তাহে পাকিস্তানের লাহোরে শাহদারা জেলার একটি ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে এ ঘটনা ঘটে।

 

ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানায়, সম্প্রতি শাহদারার সাদা-ই-ইমাম হুসাইন হলের বৈদ্যুতিক কাজের জন্য রফিক নামে এক ইলেক্ট্রিশিয়ানকে ভাড়া করেন হলভবনের তত্ত্বাবধায়ক আলি রাজা। স্বাভাবিকভাবেই কাজ শেষে মজুরি চাইতে যান ইলেক্ট্রিশিয়ান। সে সময় আলি রাজা এ ব্যাপারে তাকে অন্য আরেকদিন যোগাযোগ করার কথা বলেন। এভাবে বেশ কয়েকদিন মজুরি মেটানোর প্রতিশ্রুতি দিলেও প্রত্যেকবারই তার বরখেলাপ করেন ওই তত্ত্বাবধায়ক। শেষমেশ মজুরির জন্য অনেক চাপাচাপি শুরু করেন রফিক। এরই এক পর্যায়ে ক্ষেপে গিয়ে একদিন তার পেছনে পোষা সিংহ লেলিয়ে দেন আলি রিয়াজ।  

যথারীতি সিংহটি ছুটে গিয়ে রফিকের ওপর হামলা চালায়। এতে তার মুখ ও হাতে গুরুতর জখম হয়। রফিক জানান, ঘটনার সময় কেয়ারটেকারসহ আরও ৩জন সেখানে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু তারা নির্বিকার দর্শক হয়ে ওই ঘটনা দেখছিলেন। কেউই তাকে বাঁচাতে এগিয়ে যাননি। শেষমেশ কান্না ও চিৎকার-চেঁচামেচি শুনে পথচারীরা গিয়ে তাকে উদ্ধার করেন।  

রফিক আরও জানান, ঘটনার পরপরই আলি রিয়াজ ক্ষতিপুরণসহ তার চিকিৎসার সব ব্যয়ভার বহনের প্রতিশ্রুতি দেওয়ায় তিনি শুরুতে পুলিশের কাছে কোনো অভিযোগ করেননি। কিন্তু বরাবরের মতোই সে প্রতিশ্রুতিও ভঙ্গ করেন আলি। শেষমেশ ১১ অক্টোবর তার বিরুদ্ধে হত্যা চেষ্টার মামলা করেন রফিক।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১০ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৭, ২০১৯ 
এইচজে 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।