ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ০৭ জুলাই ২০২২, ০৭ জিলহজ ১৪৪৩

অন্যান্য দল

মায়ানমার অভিমুখে ইসলামী আন্দোলনের লংমার্চের ঘোষণা

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০৭০৬ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৬, ২০১৬
মায়ানমার অভিমুখে ইসলামী আন্দোলনের লংমার্চের ঘোষণা ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

রোহিঙ্গা নির্যাতন বন্ধ না হলে আগামী ১৮ ডিসেম্বর (রোববার) মায়ানমার অভিমুখে লংমার্চের ঘোষণা দিয়েছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।

ঢাকা: রোহিঙ্গা নির্যাতন বন্ধ না হলে আগামী ১৮ ডিসেম্বর (রোববার) মায়ানমার অভিমুখে লংমার্চের ঘোষণা দিয়েছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ।

মঙ্গলবার (০৬ ডিসেম্বর) মায়ানমার দূতাবাস ঘেরাও কর্মসূচি থেকে নতুন এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন দলটির আমির হজরত মাওলানা মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করিম।

পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী দূতাবাস ঘেরাওয়ের জন্য মঙ্গলবার (০৬ ডিসেম্বর) সকাল ১০টায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের অনুসারীরা বায়তুল মোকাররম মসেজিদের সামনে জমায়েত হয়।

সংক্ষিপ্ত সমাবেশ শেষে বেলা সোয়া ১১টায় মিছিল নিয়ে মায়ানমার দূতাবাস অভিমুখে রওনা হন তারা। মিছিল নিয়ে কাকড়াইলের নাইটিঙ্গেল মোড়ে পৌঁছালে পুলিশ তাদের আটকে দেয়।

নাটিঙ্গেল মোড়ে অবস্থান নিয়ে রেজাউল করিম সরকারের উদ্দেশ্যে বলেন, সীমান্ত খুলে দিয়ে রোহিঙ্গাদের আশ্রয়ের ব্যবস্থা করুন।

আগামী ১৮ ডিসেম্বর লংমার্চের ঘোষণা দিয়ে তিনি বলেন, ১৮ ডিসেম্বর মায়ানমার অভিমুখে লংমার্চ হবে। প্রয়োজনে সাঁতরে নাফ নদী পার হয়ে আমরা লংমার্চ নিয়ে মায়ানমার পৌঁছাব।

পরে পুলিশের তত্ত্বাবধানে রেজাউল করিমের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল মায়ানমার দূতাবাসে স্মারকলিপি দিতে রওনা হয়।

এর আগে সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন- ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমির ফয়জুল করিম, যুগ্ম সহাসচিব এটিএম হেমায়েত উদ্দিন প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৩০৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৬
পিএম/জিপি/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

অন্যান্য দল এর সর্বশেষ

Alexa