ঢাকা, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪৩১, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৫

রাজনীতি

নির্বাচন কেন্দ্র করে ব্যাপক ষড়যন্ত্রের আশঙ্কা

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০১৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২৩
নির্বাচন কেন্দ্র করে ব্যাপক ষড়যন্ত্রের আশঙ্কা শেখ হাসিনা। পুরোনো ছবি

ঢাকা: আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন কেন্দ্র করে ব্যাপক ষড়যন্ত্র হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ বিষয়ে দলের নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

মঙ্গলবার (৭ ফেব্রুয়ারি) রাতে আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সভায় এ নির্দেশনা দেন প্রধানমন্ত্রী। সভা শেষে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্যদের সঙ্গে কথা হলে এ তথ্য জানা যায়।

রাত ৮টায় জাতীয় সংসদ ভবনের সরকারি দলের সভা কক্ষে প্রায় এক ঘণ্টা বৈঠক করেন সংসদীয় দল। এতে সভাপতিত্ব করেন শেখ হাসিনা।

সূত্র মারফত জানা গেছে, সভার শুরুতেই রাষ্ট্রপতি নির্বাচন নিয়ে কথা বলেন শেখ হাসিনা। তিনি এ সময় সংসদ সদস্যদের মতামত নিতে সভা আহ্বান করা হয়েছে বলে জানান। পরে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের দাঁড়িয়ে বলেন, রাষ্ট্রপতি পদে প্রার্থী মনোনয়নের জন্য আমরা দলের সভাপতি প্রধানমন্ত্রীকে দায়িত্ব নেওয়ার প্রস্তাব করছি। তিনি রাষ্ট্রপতি পদে দলের প্রার্থী চূড়ান্ত করবেন। তিনি যাকে মনোনয়ন দেবেন, আমরা সবাই তাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবো।

এ সময় সব সংসদ সদস্য ওবায়দুল কাদেরের কথায় একমত পোষণ করে প্রধানমন্ত্রীকে দায়িত্ব নিতে অনুরোধ করেন। তিনিও সবার আহ্বানে সাড়া দিয়ে রাষ্ট্রপতি পদে মনোনয়নের দায়িত্ব নেন।

এ সময় শেখ হাসিনা বলেন, আপনারা এই দায়িত্ব দিলেন। আমি চিন্তা-ভাবনা করে এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেব।

এরপর শেখ হাসিনা দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন প্রসঙ্গে কথা বলেন। তিনি বলেন, আগামী নির্বাচন নিয়ে এখন থেকেই চিন্তা ভাবনা করতে হবে। মনে রাখতে হবে আগামী নির্বাচন সহজ হবে না। নির্বাচন চ্যালেঞ্জিং হবে। সে অনুযায়ী নিজ নিজ এলাকায় দলের নেতাকর্মীদের নির্বাচনের জন্য উজ্জীবিত করতে হবে। ভোটারদের কাছে গিয়ে আওয়ামী লীগের এই ১৪ বছরের সরকারের উন্নয়ন তুলে ধরতে হবে। মনে রাখবেন, এবারের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ব্যাপক ষড়যন্ত্র হতে পারে, অপপ্রচার হতে পারে। নির্বাচনের আগে দেশে এক ধরণের অরাজকতা তৈরির চেষ্টা হতে পারে। এসব বিষয়ে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। যেকোনো ষড়যন্ত্র, অস্থিতিশীলতা তৈরির চেষ্টা প্রতিহত করতে হবে। এ জন্য দলের নেতাকর্মীদের নিয়ে প্রস্তুত থাকতে হবে।

দলের সংসদ সদস্যদের উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আরও বলেন, মনে রাখতে হবে দলের মনোনয়ন বোর্ড আছে। এই পার্লামেন্টারি বোর্ড যাকে মনোনয়ন দেবে সেটাই চূড়ান্ত। সবাইকে সেই প্রার্থীর পক্ষে কাজ করতে হবে। নির্বাচনে বিএনপি আসবে, নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে। এ সময় প্রধানমন্ত্রী দলের নেতাকর্মীদের বিএনপির অতীত কর্মকাণ্ডগুলোও জনগণের কাছে ভালোভাবে তুলে ধরতে বলেন।

শেখ হাসিনা আরও বলেন, জিয়াউর রহমান সংবিধান লঙ্ঘন করে অবৈধভাবে রাষ্ট্র ক্ষমতা দখল করে বিএনপি গঠন করেছিল। যেহেতু জিয়ার ক্ষমতা দখল অবৈধ; তাই তার তৈরি রাজনৈতিক দল বিএনপিও অবৈধ। এ বিষয়গুলো মানুষের কাছে তুলে ধরতে হবে।

বাংলাদেশ সময়: ২৪১৮ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ৮, ২০২৩
এসকে/এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।