ঢাকা, রবিবার, ২ আষাঢ় ১৪৩১, ১৬ জুন ২০২৪, ০৮ জিলহজ ১৪৪৫

রাজনীতি

ফুলবাড়ীয়ায় হামলায় আহত স্বেচ্ছাসেবকলীগ কর্মীর মৃত্যু

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২০৪৯ ঘণ্টা, মে ২৭, ২০২৪
ফুলবাড়ীয়ায় হামলায় আহত স্বেচ্ছাসেবকলীগ কর্মীর মৃত্যু

ময়মনসিংহ: জেলার ফুলবাড়ীয়া উপজেলায় আওয়ামী লীগ ও স্বেচ্ছাসেবকলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় আহত স্বেচ্ছাসেবকলীগ কর্মী আখতারুল আলম শুভ (৩০) মারা গেছেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগীদের মধ্যে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে।

আহত হওয়ার ১৪ দিন পর সোমবার (২৭ মে) রাজধানীর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুভ মৃত্যুবরণ করে বলে জানিয়েছে পুলিশ।  

নিহত শুভ ফুলবাড়ীয়া উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক এনামুর রহমান রবির শ্যালক এবং স্বেচ্ছাসেবক লীগের সক্রিয় একজন কর্মী ছিলেন।

এর আগে গত ১৩ মে রাতে উপজেলার দেওখোলা বাজারে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জয়নাল আবেদিন গ্রুপের সঙ্গে সংঘর্ষের ঘটনায় মারাত্মক আহত হয় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা এনামুর রহমান রবি, তার শ্যালক আখতারুল আলমসহ পাঁচ নেতাকর্মী।  

এ ঘটনায় এনামুর রহমানের রবির ভাই মো. হাদি বাদী হয়ে জয়নাল আবেদিনসহ ১৭ জনকে আসামি করে ফুলবাড়ীয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় একজন আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়। বাকিদের কয়েকজন পলাতক থাকলেও বেশির ভাগ আসামি জামিন আছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

ফুলবাড়ীয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান বলেন, আহত একজন মারা যাওয়ায় মামলাটি এখন হত্যা মামলায় রূপান্তর হবে। সেই সঙ্গে পলাতক আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলমান রয়েছে।  

স্থানীয়রা জানান, গত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এনামুর রহমান রবি আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী ও সাবেক সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মোসলেম উদ্দিনের পক্ষে ছিলেন। জয়নাল ছিলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী আবদুল মালেক সরকারের পক্ষে। নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে আবদুল মালেক সরকার সংসদ সদস্য হন। নির্বাচনের পর থেকে এনামুর রহমান ও জয়নালের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। ফলে নির্বাচনের পর থেকেই এনামুর রহমান রবির সঙ্গে জয়নালের বিরোধ চলছিল।  

তবে সম্প্রতি একটি অনুষ্ঠানে চেয়ারে বসা নিয়ে জয়নাল আবেদিন ও এনামুর রহমান রবির মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হলে ১৩ মে রাতে দেওখোলা বাজারে দুই পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

বাংলাদেশ সময়: ২০৪৯ ঘণ্টা, মে ২৭, ২০২৪
এসএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।