ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৯ মে ২০২২, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩

রাজনীতি

নৌকার নির্বাচন করায় ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪১৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৯, ২০২২
নৌকার নির্বাচন করায় ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

সাভার (ঢাকা): সাভার উপজেলার বিরুলিয়া ইউনিয়নে পঞ্চম ধাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে প্রায় দুই সপ্তাহ পর নির্বাচনী সহিংসতার ঘটনায় হামলায় দুই পক্ষের প্রায় ৬ জন আহত হয়েছেন।

এদিকে নৌকার পক্ষ বলছে, নৌকার পক্ষে সর্মথন দিয়ে প্রার্থীকে জয়ী করতে কাজ করায় ছাত্রলীগ নেতা ও তার স্বজনদের ওপর হামলা চালিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষ আনারস প্রতীকের কর্মীরা।

এ ঘটনায় ছাত্রলীগ নেতাসহ অন্তত চারজন আহত হন।

অন্যদিকে, আনারসের পক্ষ বলছে, মাদক সেবন করতে বাধা দেওয়ায় তাদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটেছে। এতে তাদের দুইজন আহত হন।  

বুধবার (১৯ জানুয়ারি) সকালে ঘটনাটির বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিরুলিয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (এসআই) আব্দুল কুদ্দুস।

এরআগে, মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) রাতে বিরুলিয়া ইউনিয়নের কালিয়াকৈর এলাকায় এ হামলার ঘটনা ঘটে। পরে রাতেই থানায় একটি অভিযোগ দেয় ভুক্তভোগীরা।

আহতরা হলেন- বিরুলিয়া ইউনিয়নের ১ নম্বর ওয়ার্ডের সাধারণ সম্পাদ মিনহাজুল ইসলাম মৃদুল (২০), তানভীর ইসলাম হিমেল (১৮), সুমন (১৬) ও রাসেল আহমেদ (২৩)।  

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গতকাল রাতে কালিয়াকৈরে বাজারে বসে ছিলেন তানভীর ইসলাম হিমেলসহ বাকিরা। এসময় আলী আহদ্দেম, ইসমত, আতিকুল, আজিজুল ও আমজাতসহ আরও অনেকই দেশীয় অস্ত্র দিয়ে হত্যার উদ্দেশে তাদের ওপর হামলা করে। এ ঘটনায় আহত চারজনকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

তানভীর ইসলাম হিমেলের ভাই ছাত্রলীগের ইউনিয়নের নেতা ইমরান বাংলানিউজকে বলেন, এবারের নির্বাচনে আমরা ছাত্রলীগ হওয়ায় নৌকার নির্বাচন করেছি। আর নৌকার নির্বাচন করতে আমরা বাধ্য। কেনো নৌকার নির্বাচন করলাম সেখানে তারা (প্রতিপক্ষ) অনেক দিন থেকেই আমাদের ওপর নজর রেখেছে। কাল আমাকে না পেয়ে আমার ছোটো ভাই ও ওয়ার্ড ছাত্রলীগ নেতাকে কুপায়। আমি পরিবার নিয়ে আতঙ্কে আছি।

এ বিষয়ে প্রতিপক্ষ অভিযুক্তদের একজন আতিকুর রহমান বাংলানিউজকে বলেন, তারা সেখানে রাতে একটা স্থানে মাদক সেবন করছিল। এসময় আমরা তাদের প্রতিবাদ করলে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আমাদের ওপর হামলা করে। পরে আমরা প্রাণ বাঁচাতে তাদেরকেও মারধর করি। এতে আমাদের দুইজন আহত হন। থানায় একটি অভিযোগও দিয়েছি।

বিরুলিয়া পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুল কুদ্দুস বাংলানিউজকে বলেন, দুইপক্ষের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটছে। উভয়ই লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। আমি এখনও তদন্ত করতে পারিনি। তদন্ত করে উভয়পক্ষেরই মামলা নিবো। কঠোরভাবে আমি বিষয়টা দেখবো। উভয়পক্ষেরই লোক আহত আছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৪১৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৯, ২০২২
এসএফ/এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa