ঢাকা, সোমবার, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ মে ২০২২, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৩

রাজনীতি

শৈলকুপায় নির্বাচনী সহিংসতায় যুবককে কুপিয়ে হত্যা

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০২২
শৈলকুপায় নির্বাচনী সহিংসতায় যুবককে কুপিয়ে হত্যা

ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহের শৈলকুপায় নির্বাচনী সহিংসতায় আবারও মেহেদি হাসান স্বপন (৩০) নামে এক যুবককে কুপিয়ে ও পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকজন।

শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) রাতে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার সারুটিয়া ইউনিয়নের সারুটিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত স্বপন সারুটিয়া গ্রামের তালতলা পাড়ার দবির উদ্দিন শেখ।

গ্রামবাসী জানায়, শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে প্রতিপক্ষরা বাড়ি থেকে তাকে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে যায়। পরে রাতে তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও পিটিয়ে গুরুতর আহত করে ফেলে রেখে যায়। সেখান থেকে স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুরে পাঠানো হলে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

শৈলকুপা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, সারুটিয়া ইউনিয়নে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে বর্তমান চেয়ারম্যান মাহমুদুল হাসান মামুদ ও নির্বাচনে পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী জুলফিকার কাইছার টিপুর দুইটি সামাজিক দল রয়েছে। নিহত মেহেদি হাসান স্বপন জুলফিকার কাইছার টিপুর সমর্থক ছিল।

তিনি আরও জানান, গত রাতে দুর্বৃত্তদের হামলায় আহত মেহেদি হাসান স্বপন মারা গেছে। এর সঙ্গে যারা জড়িত তাদের শনাক্ত করে গ্রেফতার করতে অভিযান চলছে। এলাকার পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক রাখতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ রয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১০২২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০২২
এনটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa