ঢাকা, রবিবার, ১৭ আশ্বিন ১৪২৯, ০২ অক্টোবর ২০২২, ০৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

রাজনীতি

সরকার ক্ষমতায় থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়েছে: সিপিবি

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৩৭ ঘণ্টা, আগস্ট ৬, ২০২২
সরকার ক্ষমতায় থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়েছে: সিপিবি ছবি: শাকিল আহমেদ

ঢাকা: বিশ্ববাজারে দাম কমানোর পরে জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি করে এ লুটেরাদের সরকার ক্ষমতায় থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়েছে বলে মন্তব্য করেছে বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি।

তেলের দাম বাড়ার সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার না করলে হরতালসহ কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে বলেও সংগঠনটির পক্ষ থেকে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করা হয়।

শনিবার (৬ আগস্ট) বিকেলে রাজধানীর পুরানা পল্টন মোড়ে তেলের দাম বাড়ার গণবিরোধী সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত সমাবেশ থেকে এ মন্তব্য করা হয়।

সিপিবির সভাপতি মোহাম্মদ শাহ আলমের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন- সিপিবির সাধারণ সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স, সহ-সাধারণ সম্পাদক মিহির ঘোষ, কেন্দ্রীয় নেতা অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক এম এম আকাশ, সাজ্জাদ জহির চন্দন।

সমাবেশে সিপিবির সভাপতি মোহাম্মদ শাহ আলম বলেন, এ সরকার অগণতান্ত্রিক ও জুলুমে দেশ চালাচ্ছে। বর্তমানে আওয়ামী লীগ সিন্ডিকেটের ও লুটেরাদের সরকার। পার্লামেন্টের ৬২ শতাংশ ব্যবসায়ী সদস্য। তারা নিজ নিজ শ্রেণি স্বার্থে, ব্যবসায়ীদের স্বার্থে দেশ পরিচালনা করছে। এ সরকার জনগণের পেটে লাথি মারছে। বাজার অর্থনীতির বিপরীতে জনগণের অর্থনীতিতে দেশ পরিচালনা করা না গেলে দেশের অবস্থা আরও শোচনীয় হবে। ব্যবস্থা বদল করে তীব্র গণসংগ্রামের মধ্য দিয়ে জনগণের বিকল্প শক্তি গড়ে না তোলার কোনো বিকল্প নেই।
রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, ডিজেল, কেরোসিনসহ জ্বালানি তেলের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধি সরকারের পক্ষে অপরাধমূলক কাজ। তেলের দাম বাড়লে যাতায়াতসহ সবকিছুর দাম বাড়বে। অর্থনীতিতে চাপ পড়বে। জনজীবন বিপর্যস্ত হবে।

সমাবেশ থেকে বলা হয়, বিশ্ববাজারে দাম কমানোর পরে জ্বালানি তেলের দাম বাড়িয়ে এ লুটেরাদের সরকার ক্ষমতায় থাকার নৈতিক অধিকার হারিয়েছে। জনস্বার্থের কথা ন্যূনতম বিবেচনা করতে ব্যর্থ এ সরকারের ক্ষমতা ছেড়ে দেওয়া উচিত। এ সিদ্ধান্ত প্রত্যাহার না করলে সিপিবি জেলা-উপজেলায় ঘেরাও, অবরোধ ও প্রয়োজনে হরতালের মতো কর্মসূচি নিতে বাধ্য হবে।

মিহির ঘোষ বলেন, এ সরকার গ্যাস, তেল, সার, কেরোসিন, জ্বালানি তেলের মূল্যবৃদ্ধি করে দেশকে নজিরবিহীন বিপদের দিকে নিয়ে যাচ্ছে। দেশের খাদ্য নিরাপত্তা আজ হুমকির মুখে। মধ্যরাতের সরকার মধ্যরাতেই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে জনগণের জীবনযাত্রাকে অসহনীয় করে তুলছে।

পুরানা পল্টনে প্রতিবাদ সমাবেশ শেষে সিপিবির একটি বিক্ষোভ মিছিল প্রেসক্লাবে গিয়ে শেষ হয়।

সমাবেশ থেকে জ্বালানি তেল, সারের দাম না কমানো পর্যন্ত সারা দেশে সভা-সমাবেশ বিক্ষোভ অব্যাহত রাখতে ও ঘেরাও-অবরোধ-হরতাল সংগঠিত করার প্রস্তুতি নিতে দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

একই দাবিতে আজ সারা দেশের অন্তত ২৫টি জেলায় সিপিবির নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ করেছে বলেও সমাবেশ থেকে জানানো হয়।   

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৬ ঘণ্টা, আগস্ট ০৬, ২০২২
আরকেআর/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa