ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯, ০৪ অক্টোবর ২০২২, ০৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

বিদ্যুৎ ও জ্বালানি

‘রহস্যজনক’ কারণে সাগরে তেল-গ্যাস অনুসন্ধান বন্ধ

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫৫ ঘণ্টা, জুন ১২, ২০১৮
‘রহস্যজনক’ কারণে সাগরে তেল-গ্যাস অনুসন্ধান বন্ধ জ্বালানি বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক বদরুল ইমাম/ফাইল ছবি

ঢাকা: দেশে একটা ট্রেন্ট চালু হয়েছে, এক সময় বলা হলো গ্যাসের উপর দেশ ভাসছে, গ্যাস রফতানি করতে হবে। রফতানির প্রক্রিয়া প্রায় চূড়ান্ত হয়ে গিয়েছিলো, আন্দোলনের ফলে সেখান থেকে সরে এসেছে।

এখন একেবারেই উল্টা কথা বলা হচ্ছে। গ্যাস একেবারেই নেই।

এলএনজি আমদানি ছাড়া কোনো বিকল্প নেই। এসব কথার কোনটারই ভিত্তি নেই বলে মন্তব্য করেছেন জ্বালানি বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক বদরুল ইমাম।
 
মঙ্গলবার (১২ জুন) বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশনে (বিইআরসি) গ্যাসের দাম বৃদ্ধির উপর গণশুনানিতে তিনি এ মন্তব্য করেন।
 
বদরুল ইমাম বলেন, যারা এটা ছড়ায় তারা দেশের ক্ষতি করছে। কোনো রকম যাচাই-বাছাই ছাড়াই এ সব কথা বলা হচ্ছে। সমুদ্রে ২৬টি ব্লক, এরমধ্যে মাত্র তিনটিতে কাজ করেছে কনকো ফিলিপস। আর ২২টি ব্লক রহস্যজনক কারণে ফেলে রাখা হয়েছে।
 
হ্যাঁ এ কথার সঙ্গে একমত, এ মুহূর্তের ঘাটতি মোকাবেলায় তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) প্রয়োজনীয়তা রয়েছে। কিন্তু কেন এ পরিস্থিতি হলো। বিগত ১০-১৫ বছরে সে অর্থে কোনো কাজ হয়নি। যে কারণে আজকে এ সংকট তৈরি হয়েছে। ঢালাও ভাবে কথা না বলে তেল-গ্যাস অনুসন্ধানে জোর দেওয়ার তাগিদ দেন এ জ্বালানি বিশেষজ্ঞ।
 
তিনি বলেন, সিলেট অঞ্চলে অল্প অনুসন্ধানে অনেক গ্যাস পাওয়া গেছে। ধারণা করা হচ্ছে, গ্যাসের এ ধারাটি বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত। আমাদের অনুসন্ধান বাড়ানো খুবই জরুরি। তার আগে এভাবে গ্যাস সংকটের কথা ঢালাওভাবে প্রচার করা ঠিক হচ্ছে না।
 
এ সময় কমিশনের সদস্য, পেট্রোবাংলার ও তিতাস গ্যাসের কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকলেও তার কথার কোনো প্রতিবাদ করেন নি।
 
বাংলাদেশ সময়: ২০৪৯ ঘণ্টা, জুন ১২, ২০১৮ 
এসআই/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa