ঢাকা, বুধবার, ১১ বৈশাখ ১৪৩১, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১৪ শাওয়াল ১৪৪৫

অস্ট্রেলিয়া

বর্ণাঢ্য আয়োজনে এনটিভি অস্ট্রেলিয়ার উদ্বোধন

রাশেদ শ্রাবণ, হ্যাপি রহমান ও সায়মন সারোয়ার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮০১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০১৫
বর্ণাঢ্য আয়োজনে এনটিভি অস্ট্রেলিয়ার উদ্বোধন ছবি: মিনহাজ, আছিফুল রিসাব ও সাফাত ইকবাল

সিডনি (অস্ট্রেলিয়া) থেকে: দেশের গণ্ডি পেরিয়ে গত একবছরের বেশি সময় ধরে সীমিত প্রচারণা চালিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় বাঙালি কমিউনিটিতে বেশ জনপ্রিয় উঠেছে বেসরকারি স্যাটেলাইট টেলিভিশন এনটিভি।

আরো বড় পরিসরে ও এনটিভিকে প্রবাসে জনপ্রিয় করার প্রত্যয়ে সম্প্রতি সিডনিতে তিন দিনব্যাপী উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানের প্রথমদিন ২ জানুয়ারি স্থানীয় একটি রেস্টুরেন্টে এক মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

এতে প্রধান অতিথি ছিলেন এনটিভির চেয়ারম্যান মোসাদ্দেক আলী। তার সঙ্গে সিডনির গণ্যমান্য ব্যক্তি ছাড়াও বাঙালি কমিউনিটির বিশিষ্টজনেরা মতবিনিময় করেন।

এনটিভি অস্ট্রেলিয়ার প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) রাশেদ শ্রাবণের পরিচালনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন এনটিভি ডিরেক্টর সায়মন সারোয়ার, আসিফুল রিসাব, সাকিল আহমেদ, সাইফুল ইসলাম, কো-অর্ডিনেটর মান্নি চৌধুরী, কমিউনিটি গামা আবদুল কাদির, আবদুল হক, ডা. ওহাব বকুল, আওয়ামী লীগ অষ্ট্রেলিয়ার সভাপতি ব্যারিস্টার সিরাজ, বাংলাদেশ ভয়েস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি রেজাউল হক, ব্যাবসায়ী নেতা রশিদ ভূঁইয়া, শাহ নেয়াজ, মোবরক হোসেন, আবদুল মতিন উজ্জল, সামছুজ্জামান স্বপন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের দ্বিতীয়দিন ৩ জানুয়ারি সিডনির রকডেল টাউন হলে এনটিভির উদ্বোধনী এবং কালচারাল নাইটের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে বাঁধ ভাঙ্গা আনন্দের জোয়ারে মেতে উঠেন দর্শক-শ্রোতাসহ আমন্ত্রিতরা।

কালচারাল নাইট ও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এনটিভি অস্ট্রেলিয়ার সিইও রাশেদ শ্রাবণ বলেন, আজকের অনুষ্ঠানই সীমাবদ্ধ নয়। যারা উপস্থিত হতে পারেন নি, তাদের জন্য ভবিষ্যতে আরও বড় পরিসরে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে।

সবার সহযোগিতা কামনা করে তিনি বলেন, আশা করি এসব আয়োজনে সব সময় আপনাদের (কমিউনিটি) সবার সহযোগিতা পাবো।

অনুষ্ঠানে এনটিভি  অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন প্রোগ্রাম ও বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ দলমত নির্বেশেষে সবার ঊর্ধ্বে রেখে কাজ  চালিয়ে যেতে পরামর্শ ও সহযোগিতা চান তিনি।
অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মোসাদ্দেক আলী বলেন, আমি কথা দিয়েছিলাম, অষ্ট্রেলিয়ায় এসে অফিস উদ্বোধন করবো। কথা রেখেছি। আপনাদের কাছে আমার টিম দিয়ে যাচ্ছি, তাদের সহযোগিতা করবেন।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে ও প্রবাসে বিভিন্ন গণমাধ্যমে অবদান রাখায় বাংলাদেশ কমিউনিটি অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে সম্মাননা দেওয়া হয়।

সম্মাননাপ্রাপ্তদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন বাংলাদেশ হাইকমিশনের অনারারী কনস্যুলেট জেনারেল অ্যানথুনি ক্যারি।  

এছাড়া বাংলাদেশ কমিউনিটিতে বিশেষ অবদানের জন্যও সম্মাননা প্রদান করা হয়। তারা হলেন- আর্তমানবতা সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ব্রাইট ওয়ার্ল্ড ট্রাভেলের কর্ণধার মকবুল হোসেন ও সিডনি লেকেম্বা ব্যাবসায়ী শাহনেয়াজ টিটু।

তাদের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন বাংলাদেশ ভয়েস ও আপডেট বিডিনিউজের প্রধান সম্পাদক রেজাউল হক।

চার্লস স্ট্যার্ট ইউনির্ভাসিটির শিক্ষক শিবলী আবদুল্লাহ ও সাবরিনা এ্যানির প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ছিল লোকাল ব্যান্ড স্পর্শ ও ক্লোজ-আপ তারকা রাজিব এবং কন্ঠশিল্পী লেমিসের সংগীত সন্ধ্যা।

অনুষ্ঠানের তৃতীয়দিন ৫ জানুয়ারি সিডনির ‘অফিস পাড়া’ খ্যাত ব্যস্ততম এলাকা মার্টিন প্লেসে এমএলসি সেন্টারের ৫৭তলায় কেকে কেটে এনটিভি অস্ট্রেলিয়ার কার্যালয় উদ্বোধন করা হয়।

কায়েস মাহমুদ জনির পরিচালনায় কার্যালয়ের উদ্বোধন করেন এনটিভির চেয়ারম্যান মোসাদ্দেক আলী। পরে লেবোর্ন গালা নাইট অনুষ্ঠত হয়।  

বাংলাদেশ সময়: ১৮০১ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০১৫

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।

অস্ট্রেলিয়া এর সর্বশেষ

welcome-ad