ঢাকা, শনিবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৫ মে ২০২৪, ১৬ জিলকদ ১৪৪৫

এভিয়াট্যুর

১ সেপ্টেম্বর থেকে গুয়াংজু-ব্যাংকক রুটে বাড়ছে ইউএস-বাংলার ফ্লাইট

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৫২ ঘণ্টা, আগস্ট ১০, ২০২৩
১ সেপ্টেম্বর থেকে গুয়াংজু-ব্যাংকক রুটে বাড়ছে ইউএস-বাংলার ফ্লাইট

ঢাকা: স্বাধীনতার পর ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সই চীনের কোনো প্রদেশে পরিচালনা করা প্রথম বাংলাদেশি এয়ারলাইন্স। ২০১৮ সালের ২৬ এপ্রিল থেকে গুয়াংজু রুটে প্রতিনিয়ত এ সংস্থার ফ্লাইট পরিচালিত হচ্ছে।

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের প্রভাবের সময়েও ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ঢাকা-গুয়াংজু রুটে ফ্লাইট পরিচালনা অব্যাহত রাখে। কোভিড পরবর্তীতে যাত্রীদের চাহিদা ও কোভিডের নানাবিধ বিধিনিষেধ উঠে যাওয়ার পর ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স পরিকল্পনামাফিক ঢাকা-গুয়াংজু রুটে আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে সপ্তাহে পাঁচটি ফ্লাইট পরিচালনা করতে যাচ্ছে। বর্তমানে সপ্তাহে তিনদিন ঢাকা-গুয়াংজু রুটে ফ্লাইট পরিচালিত হচ্ছে।

বৃহস্পতিবার (১০ আগস্ট) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানায় ইউএস-বাংলা। এতে বলা হয়, আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে সপ্তাহে সোম, মঙ্গল, বুধ, বৃহস্পতি ও শনিবার ঢাকা থেকে রাত ১০টা ১০ মিনিটে গুয়াংজুর উদ্দেশ্যে ফ্লাইট ছেড়ে যাবে এবং স্থানীয় সময় ভোর ৩টা ৫০ মিনিটে সেখানে পৌঁছবে। এছাড়া গুয়াংজু থেকে সপ্তাহে মঙ্গল, বুধ, বৃহস্পতি, শুক্র ও রোববার ভোর ৫টায় ঢাকার উদ্দেশ্যে ফ্লাইট ছেড়ে আসবে এবং সকাল ৭টায় ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছবে। ঢাকা-গুয়াংজু রুটের নূন্যতম ওয়ানওয়ের ভাড়া ৩০৬৬৯ টাকা ও রিটার্ন ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৫০৫৪০ টাকা।

ভ্রমণ পিপাসু পর্যটকদের জন্য এশিয়া তথা পৃথিবীর অন্যতম গন্তব্য থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে আগামী ১ সেপ্টেম্বর থেকে প্রতিদিন সকাল ১০টা ১০ মিনিটে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ব্যাংককের সুবর্ণভূমি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাবে এবং ব্যাংককের স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ৪০ মিনিটে পৌঁছবে। আবার ব্যাংকক থেকে প্রতিদিন দুপুর ২টা ৪০ মিনিটে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে এবং বিকাল ৪টা ২৫ মিনিটে ঢাকায় পৌঁছবে। বর্তমানে সপ্তাহে চারদিন ঢাকা-ব্যাংকক রুটে ফ্লাইট চলাচল করছে। ঢাকা-ব্যাংকক রুটের নূন্যতম রিটার্ন ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৩২৮৪৩ টাকা।

ব্যাংকক, গুয়াংজু ছাড়াও ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ঢাকা থেকে কলকাতা, চেন্নাই, দুবাই, শারজাহ, মাস্কাট, দোহা, কুয়ালালামপুর. সিঙ্গাপুর ও মালদ্বীপের রাজধানী মালেতে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। এছাড়া বাংলাদেশের অভ্যন্তরে সকল রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স।

ব্যাংকক ও গুয়াংজু রুটে বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে ফ্লাইট পরিচালনা করছে ইউএস-বাংলা। বর্তমানে ইউএস-বাংলার বহরে ৮টি বোয়িং ৭৩৭-৮০০, ৯টি ব্র্যান্ডনিউ এটিআর ৭২-৬০০সহ মোট ২০টি এয়ারক্রাফট রয়েছে। শিগগির ইউএস-বাংলার বহরে দুটি এয়ারবাস ৩৩০সহ মোট ছয়টি ওয়াইড বডি ও ২০টি ন্যারোবডি এয়ারক্রাফট যুক্ত করার পরিকল্পনা নিয়েছে। এছাড়া স্বল্পতম সময়ের মধ্যে ঢাকা-দিল্লি ও ঢাকা-জেদ্দা রুটে ফ্লাইট পরিচালনার পরিকল্পনা করছে ইউএস-বাংলা।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫১ ঘণ্টা, আগস্ট ১০, ২০২৩
এমকে/এমজে

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।