ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৪ বৈশাখ ১৪৩১, ১৮ এপ্রিল ২০২৪, ০৮ শাওয়াল ১৪৪৫

কর্পোরেট কর্নার

দেশে বৈদ্যুতিক গাড়ি ব্যবহারে নতুন যুগের সূচনা

বিজনেস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৫২৫ ঘণ্টা, মার্চ ৩, ২০২৪
দেশে বৈদ্যুতিক গাড়ি ব্যবহারে নতুন যুগের সূচনা

ঢাকা: বৈশ্বিকভাবে শীর্ষস্থানীয় নিউ এনার্জি ভেহিকেল (এনইভি) নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বিওয়াইডি রোববার (২ মার্চ) আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশে এর প্রথম শো-রুম চালু করেছে।  

এর ফলে, পরিবেশ সচেতন মানুষরা স্বাচ্ছন্দ্যে বৈদ্যুতিক গাড়ি (ইভি) ব্যবহারের অভিজ্ঞতা গ্রহণের মাধ্যমে টেকসই জীবনযাপন করে পৃথিবী ও পরিবেশের সুরক্ষায় অবদান রাখতে পারবেন।

   

কার্বন নিঃসরণ মোকাবিলায় প্রচলিত জীবাশ্ম জ্বালানি-নির্ভর গাড়ির ব্যবহার ধীরে ধীরে কমিয়ে আনতে এবং বৈদ্যুতিক গাড়ি চালু করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করছে বাংলাদেশ সরকার। কিন্তু দেশের বাজারে বৈদ্যুতিক গাড়ির স্বল্পতার কারণে ইভি ব্যবহার বিবেচনায় দেশ এখনও শুরুর দিকে রয়েছে। দেশে ইভির শো-রুম চালু করার এই পদক্ষেপ দেশে ইভি ব্যবহার বাড়াতে সহায়ক ভূমিকা রাখবে।  

দেশের বাজারে বৈশ্বিকভাবে শীর্ষস্থানীয় এনইভি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান বিওয়াইডি- এর গাড়ি নিয়ে আসার উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সিজি-রানার বিডি এলটিডি। এর অংশ হিসেবে বিওয়াইডির প্রথম শো-রুম উদ্বোধন করা হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে শো-রুম উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান।

বিওয়াইডি’র শো-রুমটি রাজধানীর তেজগাঁও শিল্প এলাকায় অবস্থিত (৩৪০, হক সেন্টার, শহিদ তাজউদ্দীন আহমেদ সরণি)। ৮,৪০০ বর্গফুটের এ শো-রুমে এক সঙ্গে পাঁচটি গাড়ি রাখার ব্যবস্থা রয়েছে। প্রথমে, এ ব্র্যান্ডের ফ্ল্যাগশিপ মডেল বিওয়াইডি সিল (সেডান) এর দু’টি সংস্করণ এ শো-রুম থেকে বিক্রি করা হবে। এর মধ্যে একটি সংস্করণ হচ্ছে – ৫৭০ কিলোমিটার (রিয়ার ড্রাইভ) বর্ধিত মাইলেজ সুবিধাসহ প্রিমিয়াম ভ্যারিয়েন্ট এবং ৫২০ কিলোমিটার এডব্লিউডি (অল-হুইল ড্রাইভ) মাইলেজের পারফরমেন্স ভ্যারিয়েন্ট। বিওয়াইডি সিল- এ ব্যবহার করা হয়েছে বিওয়াইডি’র নিজেদের উদ্ভাবিত নিরবচ্ছিন্ন অত্যাধুনিক প্রযুক্তি – ই-প্ল্যাটফর্ম ৩.০, উদ্ভাবনী সিটিবি (সেল-টু-বডি) প্রযুক্তি, ব্লেড ব্যাটারি এবং আইটিএসি (ইন্টেলিজেন্ট টর্চার অ্যাডাপশন কন্ট্রোল) এবং গাড়িটির ডিজাইনও দুর্দান্ত – ওশান অ্যাসথেটিকস। এছাড়াও বিওয়াডি সিল-এ রয়েছে স্ল্যান্টেড রুফলাইন, প্যানোরোমিক গ্লাস রুফ, শর্ট রিয়ার ডেক, ওয়াটারড্রপ মিরর, ওয়েভ ওয়েস্টলাইন এবং এলইডি লাইট।

প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বলেন, সরকারের ২০৩০ সালের মধ্যে দেশে ৩০ শতাংশ বৈদ্যুতিক যান ব্যবহার নিশ্চিত করা এবং ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ রূপকল্প অর্জনের লক্ষ্য রয়েছে। আর এ উভয় লক্ষ্য অর্জনের ক্ষেত্রেই দেশে বৈদ্যুতিক গাড়ি ব্যবহারের সুযোগ বাড়ানো গুরুত্বপূর্ণ; যেনো মানুষের বৈদ্যুতিক গাড়ি কেনার সংখ্যা বাড়ে। বিওয়াইডি দেশে প্রথম শো-রুম উন্মোচন করেছে; আমি তাদের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানাই।

বিওয়াইডি শো-রুমে গিয়ে আগ্রহী ক্রেতারা বিওয়াইডি গাড়ির অভিজ্ঞতা গ্রহণ করতে পারবেন। বিওয়াইডি গাড়ির ক্রেতাদের সুবিধার্থে শো-রুমটিতে দু’টি চার্জিং স্টেশন (এসি ও ডিসি) থাকবে। বৈদ্যুতিক গাড়ির ব্যবহার ত্বরান্বিত করার লক্ষ্যে ভবিষ্যতে আরও শো-রুম ও সার্ভিস সেন্টার চালুর পরিকল্পনা রয়েছে সিজি রানারের।

বাংলাদেশ সময়: ১৫২৫ ঘণ্টা, মার্চ ০৩, ২০২৪
আরআইএস

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।