ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ৩০ মে ২০২৪, ২১ জিলকদ ১৪৪৫

কর্পোরেট কর্নার

সিলেটে ওয়ালটনের ‘ননস্টপ মিলিয়নিয়ার’ ক্যাম্পেইন শুরু

বিজনেস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১২৬ ঘণ্টা, মার্চ ১১, ২০২৪
সিলেটে ওয়ালটনের ‘ননস্টপ মিলিয়নিয়ার’ ক্যাম্পেইন শুরু

ঢাকা: ‘সেরা পণ্যে সেরা অফার’ স্লোগানে সিলেটে শুরু হয়েছে দেশের ইলেকট্রনিক্স জায়ান্ট ওয়ালটনের ‘ননস্টপ মিলিয়নিয়ার’ ক্যাম্পেইনের ব্র্যান্ডিং কার্যক্রম।

ঈদকে সামনে রেখে রোববার (১০ মার্চ) সিলেট নগরীর দক্ষিণ সুরমার কুশিয়ারা কনভেনশন হলে বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্যে দিয়ে ওয়ালটনের ‘ননস্টপ মিলিয়নিয়ার’ ক্যাম্পেইনের ব্র্যান্ডিং কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়।

 

উদ্দেশ্য, আগের মতো ‘সিজন-২০’ এও গ্রাহক পর্যায়ে ব্যাপক সাড়া সৃষ্টি, ওয়ালটন পণ্য কিনে ‘ননস্টপ মিলিয়নিয়ার’ হওয়ার সুবিধা সম্পর্কে গ্রাহকদের অবহিত করার পাশাপাশি দেশীয় শিল্পের টেকসই বিকাশ ও দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের স্বার্থে দেশি পণ্য ক্রয়ে গ্রাহকদের উদ্বুদ্ধ করা।  

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ওয়ালটনের চিফ মার্কেটিং অফিসার দিদারুল আলম খান, ওয়ালটন ডিস্ট্রিবিউটর নেটওয়ার্কের হেড অব সেলস ফিরোজ আলম, ওয়ালটন প্লাজার চিফ সেলস এক্সিকিউটিভ ওয়াহিদুজ্জামান তানভীর, ওয়ালটনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর আমিন খান, শাহজালাল হোসেন লিমন ও শাহজাদা সেলিম প্রমুখ।

ক্যাম্পেইন অনুষ্ঠানে ওয়ালটন প্লাজা ও ডিস্ট্রিবিউটর নেটওয়ার্কের সিলেট জোনের আওতাধীন বিভিন্ন জেলার ২ শতাধিক পরিবেশক, প্লাজা ম্যানেজার ও বিক্রয় প্রতিনিধি অংশ নেন।

ওয়ালটনের চিফ মার্কেটিং অফিসার দিদারুল আলম খান বলেন, দেশকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে দেশে তৈরি পণ্যের প্রতি গুরুত্ব দিতে হবে। এতে দেশের অর্থ দেশে থাকবে। দেশীয় শিল্পের টেকসই বিকাশের সঙ্গে তৈরি হবে ব্যাপক কর্মসংস্থানের সুযোগ। দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতি আরও ত্বরান্বিত হবে।  

তিনি আরও বলেন, গাজীপুরে নিজস্ব কারখানায় বিশ্বমানের পণ্য তৈরি ও বাজারজাত করছে ওয়ালটন। বিশ্বের সেরা সেলস টিম রয়েছে ওয়ালটনের। তাদের অক্লান্ত পরিশ্রমের মাধ্যমে দেশব্যাপী ঘরে ঘরে পৌঁছে গেছে ওয়ালটন পণ্য।  

অনুষ্ঠানে সিলেট জোনের সংশ্লিষ্ট প্লাজা ম্যানেজার, পরিবেশক ও বিক্রয় প্রতিনিধিদের ব্যতিক্রমী ও সাড়া জাগানো বিভিন্ন প্রচার-প্রচারণামূলক কার্যক্রম চালানোর পরামর্শ দেন দিদারুল আলম খান।

ওয়ালটন ডিস্ট্রিবিউটর নেটওয়ার্কের হেড অব সেলস ফিরোজ আলম বলেন, ওয়ালটন পণ্য এখন ৪০টিরও বেশি দেশে পণ্য রপ্তানি হচ্ছে। ওয়ালটন গ্রাহকদের হাতে শুধু বিশ্বমানের পণ্যই তুলে দিচ্ছে না, সর্বোচ্চ গ্রাহক সুবিধা ও সর্বোত্তম বিক্রয়োত্তর সেবাও নিশ্চিত করছে। এরই অংশ হিসেবে সারা দেশের ক্রেতাদের জন্য আবারও মিলিয়নিয়ার হওয়ার সুযোগ নিয়ে এসেছে ওয়ালটন। আগের মতো এবারের সিজনও সিলেটসহ দেশের প্রতিটি অঞ্চলে শতভাগ সফল হবে বলে তিনি দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন।  

জানা গেছে, ডিজিটাল ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে এর আগেও ওয়ালটন পণ্য কিনে মিলিয়নিয়ার হয়েছিলেন ৩০ জন ক্রেতা। ঈদকে সামনে রেখে ক্রেতাদের জন্য বিশেষ উপহার হিসেবে সিজন-২০ এ ‘সেরা পণ্যে সেরা অফার’ স্লোগানও আবারও এ সুবিধা দিচ্ছে ওয়ালটন।

সিজন-২০ চলাকালীন দেশের যেকোনো ওয়ালটন প্লাজা, পরিবেশক শোরুম ও অনলাইন সেলস প্ল্যাটফর্ম ‘ই-প্লাজা’ থেকে ফ্রিজ, এসি, টিভি, ওয়াশিং মেশিন ও ফ্যান কিনে আবারও মিলিয়নিয়ার হওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন ক্রেতারা।  

এছাড়া রয়েছে কোটি কোটি টাকার নিশ্চিত উপহার। চলতি বছরের ১ মার্চ থেকে পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত ‘ননস্টপ মিলিয়নিয়ার’ হওয়ার এ সুযোগ পাবেন ক্রেতারা।  

বাংলাদেশ সময়: ০১২৫ ঘণ্টা, মার্চ ১১, ২০২৪
আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।