ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৯ মাঘ ১৪২৯, ০২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১০ রজব ১৪৪৪

কর্পোরেট কর্নার

ভবিষ্যৎ উন্নয়নকে সমৃদ্ধ করার লক্ষ্যে লিডারশিপ সামিট

কর্পোরেট ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১০৮ ঘণ্টা, নভেম্বর ৫, ২০২২
ভবিষ্যৎ উন্নয়নকে সমৃদ্ধ করার লক্ষ্যে লিডারশিপ সামিট

ঢাকা: বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের আয়োজনে প্রতিষ্ঠানটির ফ্ল্যাগশিপ ইভেন্ট লিডারশিপ সামিটের ষষ্ঠতম আয়োজন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (৫ নভেম্বর) ঢাকার লা মেরিডিয়ান হোটেলে ইউনাইটেড গ্রুপের প্রযোজনা এবং টিম গ্রুপ, দ্য ডেইলি স্টার এবং মেট্রোপলিটান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এমসিসিআই) সহযোগিতায় আয়োজিত সামিটের মূল থিম ছিলো ‘টান্সফরমেটিভ হিউম্যান লিডারশিপ ডিউরিং অর্ডিনারি টাইমস’।

দিনব্যাপী সামিটে দেশ এবং বিদেশের বিভিন্ন বিশেষজ্ঞ এবং নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিরা অংশগ্রহণ করে নিজেদের অভিজ্ঞতা এবং নেতৃত্বের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কথা বলেন। আয়োজনটি ৪টি প্যানেল ডিসকাশন, ৪টি কি-নোট সেশন এবং একটি ইনসাইট সেশনের সমন্বয়ে পরিচালিত হয়।  

আয়োজনের শুরুতে বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা এবং ম্যানেজিং ডিরেক্টর শরিফুল ইসলাম বলেন, স্বাধীনতার ৫০তম বর্ষ উদযাপনের এই সময়ে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশ হিসেবে উত্তীর্ণ হবার কৃতিত্ব অর্জন করেছে। ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশে হবার একটি সাহসী লক্ষ্যে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম দেশের সিনিয়র কর্পোরেট লিডারদের উন্নয়নের ব্যাপারটিকে খুব গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করে। যাতে আমরা আমাদের জাতীয় লক্ষ্যে পৌছুতে সক্ষম হই।

অস্ট্রেলিয়ার লিডারশিপ ট্রেনার কমপ্লেক্সিবিলিটি পিটিই লিমিটেডে ডিরেক্টর ভিভিয়েন রিড আয়োজনটির প্রথম কি-নোট সেশন পরিচালনা করেন। তার আলোচনায় তিনি লিডারশিপ বোঝার জন্য সহায়ক সিনফেনিক ফ্রেইমওয়ার্ক নিয়ে দীর্ঘ আলোচনা করেন।

ধারাবাহিকভাবে তওসিফ ইশতিয়াক, পার্টনার, বোস্টন কনসাল্টিং গ্রুপ, মালয়েশিয়া; দ্য মাইন্ডওয়ার্কসের সিইও এবং টাটা সন্স লিমিটেডের সাবেক ডিরেক্টর আর গোপালাকৃষ্ণ এবং কর্পোরেট অ্যাডভাইজর প্রফেসর রজার লেভারমোর পরবর্তী কি-নোট সেশনগুলো পরিচালনা করেন।

আয়োজননের একমাত্র ইনসাইট সেশন, ‘ইকোনোমিক আউটলুক অব বাংলাদেশ’ সঞ্চালনা করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব বিজনেজ আডমিনিসট্রেশনের (আইবিএ) অধ্যাপক এবং এশিয়া মার্কেটিং ফেডারেশনের , প্রেসিডেন্ট ডক্টর সৈয়দ ফেরহাত আনোয়ার।

এছাড়াও দিনব্যাপী সামিটের বিভিন্ন সেশনের আলোচনায় বাংলাদেশের আসন্ন সম্ভাবনা ও চ্যালেঞ্জগুলো প্রাসঙ্গিক হয়ে ওঠে। দিনের প্রথম প্যানেল সেশনের আলোচনায় নেতৃত্বের ভবিষ্যৎ প্রসঙ্গে রাসেল টি আহমেদ বলেন, সেমি কন্ডাকটর শিল্পে বাংলাদেশের সম্ভাবনা অভাবনীয়। কিন্তু আন্তর্জাতিক আইটি বাজারে প্রবেশের জন্য বাংলাদেশকে আরও ভূমিকা রাখতে হবে।

অন্যদিকে দিনের দ্বিতীয় প্যানেল আলোচনায় স্পিকার কাজী ইনাম আহমেদ লিডারশিপের অন্যতম দক্ষতা হিসেবে অধ্যবসায়কে চিহ্নিত করে বলেন, এই দক্ষতাটি বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানে আরো জোরালোভাবে অনুশীলন করা প্রয়োজনীয়। কেননা অনেক ফার্স্ট জেনারেশন লিডার এবং তাদের প্রতিষ্ঠান সফল হতে পেরেছে অধ্যবসায়ের মাধ্যমে।

অন্যান্য আলোচনায় বক্তা হিসেবে আরও উপস্থিত ছিলেন, ব্র্যাকের পিপল, কালচার অ্যান্ড কমিউনিকেশনের সিনিয়র ডিরেক্টর মৌটুশি কবির; বায়োসেলিয়ন এসপিসি, চিফ পিপল অফিসার, লিডারশিপ ট্রেইনার, ম্যানিলা, ফিপিপাইনস; ডিরেক্টর, ফিউচার কনসিডারেশন্স; বেথ ম্যাকডোনাল্ড, মেট্রোপলিটান চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, ঢাকা (এমসিসিআই), ডিরেক্টর আনিস এ আহমেদ; এমসিসিআই প্রেসিডেন্ট মো. সাইফুল ইসলাম; বিজিএমইএ, ভাইস প্রেসিডেন্ট, মিরান আলী; বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস) প্রেসিডেন্ট রাসেল টি. আহমেদ; ভিজ্যুয়াল আর্টিস্ট, প্রেসিডেন্ট, উইমেন ইন লিডারশিপ (উইল); পরিচালক, বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম; নাজিয়া আন্দালিব প্রীমা; নেসলে বাংলাদেশ লিমিটেড, ম্যানেজিং ডিরেক্টর দীপল আবেউইক্রমা; ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ; ম্যানেজিং ডিরেক্টর, শেহজাদ মুনিম, চেয়ারপারসন, বিল্ড এবং ফরমার প্রেসিডেন্ট, মেট্রোপলিটন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, ব্যারিস্টার নিহাদ কবি; ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যান্স কর্পোরেশন, বাংলাদেশ সিনিয়র কান্ট্রি অফিসার, নুজহাত আনোয়ার।

ষষ্ঠ লিডারশিপ সামিটে বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরাম উন্মোচন করে প্রতিষ্ঠানটির নতুন দ্বিমাসিক প্রকাশনা ‘সিএও রিভিউ’। একইসাথে আয়োজনটিতে ঘোষণা দেওয়া হয় প্রতিষ্ঠানটির নতুন উদ্যোগ, লিডারশিপ একাডেমির।  

লিডারশিপ সামিটের ২০২২ সমাপ্তির পর বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের আরেকটি আয়োজন বাংলাদেশ সি-স্যুট এওয়ার্ডস ২০২২ অনুষ্ঠিত হয়। প্রথমবারের মতো বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত এই আয়োজনে দেশের ব্যবসায়িক নেতৃস্থানীয় ব্যক্তিদের পুরস্কৃত করা হয়।

বাংলাদেশ ব্র্যান্ড ফোরামের আয়োজনে এবারের লিডারশিপ সামিটের প্রযোজনায় ছিলো ইউনাইটেড গ্রুপ এবং সহযোগিতায় ছিলো টিম গ্রুপ, দ্য ডেইলি স্টার এবং মেট্রোপলিটান চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি, ঢাকা (এমসিসিআই)। এছাড়াও সহায়তায় ছিল বেক্সিমকো ফার্মা। ইভেন্টের স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার- মাইন্ড ম্যাপার বাংলাদেশ, নলেজ পার্টনার- মার্কেটিং সোসাইটি অব বাংলাদেশ (এমএসবি), লার্নিং অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টনার- বাংলাদেশ অর্গানাইজেশন ফর লার্নিং অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট (বোল্ড), টেকনোলজি পার্টনার- আমরা টেকনোলজিস লিমিটেড, পিআর পার্টনার- ব্যাকপেজ পিআর, একাডেমিয়া পার্টনার - লিডারশিপ একাডেমি।

বাংলাদেশ সময়: ২১০৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৫, ২০২২
পিআর/এমজেএফ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa