ঢাকা, শুক্রবার, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৪ মে ২০২৪, ১৫ জিলকদ ১৪৪৫

ক্রিকেট

নারাইনের সেঞ্চুরির পরও বাটলার হারিয়ে দিলেন কলকাতাকে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, স্পোর্টস  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০৩২ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
নারাইনের সেঞ্চুরির পরও বাটলার হারিয়ে দিলেন কলকাতাকে

সুনীল নারাইন পেলেন সেঞ্চুরির দেখা। দলও পেলো বেশ ভালো সংগ্রহ।

কিন্তু শেষ অবধি সেটিও যথেষ্ট হলো না জয়ের জন্য। জশ বাটলার সেঞ্চুরি করলেন, রভমন পাওয়েলরা সারলেন বাকি কাজটা। জয়ের স্বস্তি নিয়েই মাঠ ছাড়ে রাজস্থান রয়্যালস।  

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে মঙ্গলবার ইডেন গার্ডেন্সে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে দুই উইকেটে হারিয়েছে রাজস্থান রয়্যালস। আগে ব্যাট করে জয় উইকেট হারিয়ে ২২৩ রান করে কলকাতা। ওই রান শেষ বলে গিয়ে তাড়া করেছে রাজস্থান। এটিই আইপিএলে সবচেয়ে বেশি রান তাড়ার রেকর্ড।  

শুরুতে ব্যাট করতে নামা কলকাতার হারিয়ে ফেলে ফিল সল্টের উইকেট। ১৩ বলে ১০ রান করে আবেশ খানের বলে তার হাতেই ক্যাচ দেন তিনি। এরপর ক্রিজে এসে সুনীল নারাইনের সঙ্গে ৮৫ রানের জুটি গড়েন আংক্রিশ রাঘুবংশী। তার বিদায়ের পর দ্রুত আরও দুটি উইকেট হারিয়ে ফেলে কলকাতা।  

৭ বলে ১১ রান করে শ্রেয়াস আয়ার ও ১০ বলে ১৩ রান করে আন্দ্রে রাসেল আউট হয়ে যান। এসব চাপ সামলে হাত খুলে খেলতে থাকেন নারাইন। ৪৯ বলে সেঞ্চুরি তুলে নেন তিনি। কলকাতার জার্সিতে স্রেফ তৃতীয় ব্যাটার হিসেবে আইপিএলে তিন অঙ্কের দেখা পান নারাইন। এর আগে ভেঙ্কাটেশ আয়ার ও ব্রেন্ডন ম্যাককালামের ছিল এমন কীর্তি।

১৮তম ওভারে এসে ট্রেন্ড বোল্টের বলে বোল্ড হওয়ার পর নারাইনের ইনিংসের ইতি ঘটে। ১৩ চার ও ৬ ছক্কার ইনিংসে ৫৬ বলে ১০৯ রান করেন তিনি। ৯ বলে ২০ রান করে দলের রানকে আরও একটু সুবিধাজনক অবস্থায় নিয়ে যান রিঙ্কু সিং। দুটি করে উইকেট পান আবেশ খান ও কুলদ্বীপ সেন।  

রান তাড়ায় নামা রাজস্থানকে জিততে হলে রেকর্ডই গড়তে হতো। ইম্প্যাক্ট খেলোয়াড় হিসেবে নামা জশ বাটলার শেষ অবধি অপরাজিত থেকে দলকে জিতিয়েই মাঠ ছেড়েছেন। ৬০ বল খেলে ১০৭ রান করেছেন তিনি। নিয়মিত উইকেট হারিয়ে চাপেই ছিল তার দল রাজস্থান।  

শেষ দুই ওভারে দুই উইকেট হাতে নিয়ে তাদের প্রয়োজন ছিল ২৮ রানের। এর মধ্যে ১৯তম ওভার দুই ছক্কা ও এক চারে ১৯ রান নেন বাটলার। শেষ ওভারে ৮ রান ডিফেন্ড করতে আসেন ভরুন চক্রবর্তী। প্রথম বলেই ছক্কা হাঁকিয়ে সেঞ্চুরি পূর্ণ করে নেন বাটলার। ওই ওভারের শেষ বলে তাদের জয় নিশ্চিত হয় সিঙ্গেলস নিয়ে।  

বাটলার ছাড়াও দুজন ব্যাটারের ব্যাট থেকে রান এসেছে। রিয়ান পরাগ ১৪ বলে ৩৪ ও রভমন পাওয়েল ১৩ বলে করেছেন ২৬ রান। হার্শিত রানা, সুনীল নারাইন ও ভরুণ চক্রবর্তী কলকাতার হয়ে নিয়েছেন দুই উইকেট করে।  

বাংলাদেশ সময় : ১২৩২ ঘণ্টা, ১৭ এপ্রিল, ২০২৪
এমএইচবি
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।