ঢাকা, বুধবার, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৯ মে ২০২৪, ২০ জিলকদ ১৪৪৫

ক্রিকেট

মোস্তাফিজের বোলিংয়ে হতাশ হার্শা-মুডি, প্রশংসা গিলক্রিস্টের

স্পোর্টস ডেস্ক  | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩৫৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ২০, ২০২৪
মোস্তাফিজের বোলিংয়ে হতাশ হার্শা-মুডি, প্রশংসা গিলক্রিস্টের

এবারের আইপিএলর শুরুর দিকে বল হাতে দারুণ ছন্দে ছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। তার স্লোয়ারে বিভ্রান্ত হচ্ছিলেন প্রতিপক্ষ ব্যাটাররা।

এমনকি এক পর্যায়ে সর্বোচ্চ উইকেট নিয়ে 'পার্পল' ক্যাপের মালিক হয়েছিলেন এই বাঁহাতি পেসার।  

তবে এখন অনেকটা পিছিয়ে পড়েছেন মোস্তাফিজ। উইকেট পেলেও টানা দুই ম্যাচে রান বিলিয়েছেন দেদারসে। গতকাল লখনউ সুপার জায়ান্টসের বিপক্ষে ৪ ওভারে ৪৩ রান খরচ করেন তিনি। তার নিষ্প্রভ থাকার দিনে চেন্নাই সুপার কিংস হেরেছে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে।  

মোস্তাফিজের বোলিংয়ে হতাশ প্রকাশ করেছেন ভারতের ক্রিকেট বিশ্লেষক ও ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলে। তবে তিনি মনে করেন, দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং করা সহজ হয়ে যাওয়ার কারণেই ভুগতে হয়েছে মোস্তাফিজকে। হার্শা বলেন, 'চেন্নাই সুপার কিংস যখন ব্যাটিং করছিল, তখন বল খানিকটা গ্রিপ করছিল। আমার মনে হয়েছিল, এই উইকেটে মোস্তাফিজ দারুণ বোলিং করবে। উইকেটের ব্যাপারটা কী ছিল জানি না। তবে মনে হচ্ছে, পরের দিকে ব্যাটিং করাটা সহজ হয়ে গিয়েছিল। '

অবশ্য লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসের বিপক্ষে চেন্নাইয়ের কোনো বোলারই সুবিধা করতে পারেননি। ৪২ রান খরচ করেন তুষার দেশপান্ডে। এ ছাড়া শ্রীলঙ্কার পেসার মাথিসা পাথিরানা ২৯ রান ও রবীন্দ্র জাদেজা ৩ ওভারে দেন ৩২ রান। এমন বোলিংয়ের পর শুধু মোস্তাফিজ নন, চেন্নাইয়ের সব বোলারের সমালোচনা করেছেন অস্ট্রেলিয়ার আরেক সাবেক ক্রিকেটার ও কোচ টম মুডি, 'মোস্তাফিজ, দেশপান্ডে, জাদেজা- সবাই ওভারপ্রতি দশের বেশি রান দিয়েছে। এমন বোলারদের কাছে এধরনের বোলিং প্রত্যাশা করা যায় না। '

তবে মুডি ও হার্শার সঙ্গে একমত নন অস্ট্রেলিয়ার সাবেক উইকেটকিপার-ব্যাটার অ্যাডাম গিলক্রিস্ট। মোস্তাফিজের প্রচেষ্টার প্রশংসা করে তিনি বলেন, 'মোস্তাফিজ খুব ভালোভাবে স্লোয়ার দেওয়ার চেষ্টা করেছে। চেন্নাইয়ে আমরা দেখেছি তার স্লোয়ারগুলো কাজে দিয়েছে। কিন্তু এখানে কাজে আসেনি। '

আগামী ২৩ এপ্রিল ফের লক্ষ্ণৌ সুপার জায়ান্টসের মুখোমুখি হবে চেন্নাই। সেই ম্যাচ অবশ্য নিজেদের ঘরের মাঠ চিপকে খেলবে তারা। যেখানে অ্যাওয়ে ম্যাচের চেয়ে বেশি কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারেন মোস্তাফিজ। অবশ্য তার হাতে খুব বেশি সময় নেই। আগামী ১ মে পর্যন্ত চেন্নাইয়ের হয়ে খেলতে পারবেন ফিজ। অর্থাৎ হাতে আছে আর মাত্র ৩ ম্যাচ। এরপর তিনি ফিরে আসবেন দেশে। জিম্বাবুয়ে সিরিজ ও বিশ্বকাপের আগে ওয়ার্কলোড ম্যানেজ করার জন্যই তাকে আইপিএলের মাঝপথে দেশে ফেরানো হচ্ছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ২০, ২০২৪
এমএইচএম

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।