ঢাকা, মঙ্গলবার, ৩ কার্তিক ১৪২৮, ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

ক্রিকেট

শেষ বলে আইরিশদের শ্বাসরুদ্ধকর জয়

স্পোর্টস করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৩৮ ঘণ্টা, মার্চ ১৭, ২০১৪
শেষ বলে আইরিশদের শ্বাসরুদ্ধকর জয়

সিলেট: ব্যাট হাতে দারুণ পারফরমেন্স করে আয়ারল্যান্ডকে ১৬৪ রানের লক্ষ্য দিয়েছিলেন জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলর। কিন্তু শেষ বলে দলের হার এড়ানোর সুবর্ণ সুযোগ পেয়েও ব্যর্থ হলেন এই উইকেটরক্ষক।

শেষ ওভারে দুটি উইকেট হারানো আইরিশরা শেষ বলের উত্তেজনায় জয় পেল তিন উইকেটের। সোমবার সিলেট বিভাগীয় স্টেডিয়ামে এমনই এক শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচ উপহার দিল দুদল।

জিম্বাবুয়ে: ১৬৩/৫ (২০ ওভার)
আয়ারল্যান্ড: ১৬৪/৭ (২০ ওভার)
ফল: আয়ারল্যান্ড জয়ী তিন উইকেটে

শেষ দুই ওভারে আয়ারল্যান্ডের জন্য জিততে করতে হতো ৭ রান। সহজ জয়ই অপেক্ষা করছিল তাদের। কিন্তু তেন্দাই চাতারা দারুণ বোলিং করে দিলেন ৩ রান। ২০তম ওভারটির দায়িত্ব পেলেন তিনাশে পানিয়াঙ্গারা, আইরিশদের দরকার ৪টি রান। ডানহাতি পেসারকে প্রথম বলে মিডউইকেটে ফ্লিক করে দৌড়ে একটি রান নেন এড জয়েস। পরের বলটি মিডঅফ দিয়ে একটি সিঙ্গেল নেন স্টুয়ার্ট থম্পসন।

দরকার আর দুই রান। কিন্তু তৃতীয় ও চতুর্থ বলেই দুটি উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে আয়ারল্যান্ড। জয়েসকে (২২) বোল্ড করে, আর ম্যাক্স সোরেনসেন সরাসরি থ্রোতে রান আউট। পঞ্চম বলে থার্ড ম্যান অঞ্চল দিয়ে একটি রান নেন থম্পসন। শেষ বলে এক রান প্রয়োজন ছিল, পানিয়াঙ্গারার ইয়র্কার ব্যাটে না লেগে চলে গেল টেলরের হাতে। চোখ বন্ধ করে দৌড় দিলেন অ্যালেক্স কোসাক। জিম্বাবুয়ে অধিনায়ক ঠিকমতো লাগাতে পারলেন না স্ট্যাম্পে, বাইয়ে একটি রান। সহজ জয়টি উত্তেজনাকরভাবে জিতল আয়ারল্যান্ড।

এর আগে আইরিশদের জয়ের কাজটা সহজ করে দিয়েছিলেন পল স্টারলিং। ২৯ বলে আট চার ও এক ছয়ে ফিফটি হাঁকান তিনি। পঞ্চম হাফ সেঞ্চুরি মারা ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান থেমেছেন ৩৪ বলে ৬০ রানে, নয় চার ও একটি ছক্কায় সাজানো তার ম্যাচসেরা ইনিংস।

উইলিয়াম পোর্টারফিল্ডের সঙ্গে উদ্বোধনী জুটিতে তিনি ৫০ বলে ৮০ রানের জুটি গড়েন। দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে স্টারলিং সাজঘরে ফেরেন দলীয় ১০০ রানে।

আউট হবার আগে পোর্টারফিল্ড ২৩ বলে তিন চার ও এক ছয়ে ৩১ রান করেন। এড জয়েস ও এন্ড্রু পয়েন্ট‍ার ব্যাটিং ক্রিজে খেলছেন।

দলীয় ১৬ রানে প্রথম উইকেটটি হারায় জিম্বাবুয়ে। ব্যক্তিগত ১০ রানে ওপেনার সিকান্দার রাজা শিকার হন অ্যালেক্স কোসাকের। এরপর হ্যামিল্টন মাসাকাদজা ও টেলর ৪২ রানের ঝড়ো জুটি গড়েন। মাসাকাদজা ২১ রানে আউট হলে এই জুটি ভাঙে।

৩৮ বলে চারটি চার ও দুটি ছয়ে ক্যারিয়ারের পঞ্চম ও বিশ্বকাপের দ্বিতীয় ফিফটি পান টেলর। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান শেষ পর্যন্ত থাকতে পারেননি। ৪৬ বলে ছয় চার ও দুই ছয়ে ৫৯ রান করেন তিনি।

শন উইলিয়ামস নয় বলে একটি করে চার ও ছয়ে ১৬ রান করেন। ভুসি সিবান্দা সমান রান করেন ১৮ বলে। এলটন চিগুম্বুরা ১১ বলে ১৫ ও টিমিসেন মারুমা ১৩ রানে অপরাজিত ছিলেন।

আইরিশদের হয়ে বল হাতে দুটি করে উইকেট ‍পান জর্জ ডকরেল ও এন্ডি ম্যাকব্রিন।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩৭ ঘণ্টা, ১৭ মার্চ ২০১৪

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa