ঢাকা, শনিবার, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯, ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪

ক্রিকেট

টেলরের আত্মজীবনীতে বর্ণবাদের অভিযোগ

স্পোর্টস ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৪৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১১, ২০২২
টেলরের আত্মজীবনীতে বর্ণবাদের অভিযোগ

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়ার কয়েক মাস পর লেখা নতুন আত্মজীবনী ‘রস টেলর ব্ল্যাক অ্যান্ড হোয়াইট’ গ্রন্থে নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেটের এক করুণ চিত্রের কথা তুলে ধরেছেন রস টেলর, যা বিস্মিত করেছে পুরো ক্রিকেট বিশ্বকে। মায়ের দিক থেকে আদিবাসী হওয়ায় তিনি অন্য খেলোয়াড়দের বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার হয়েছেন বলে উল্লেখ করেছেন।

তিনি বলেছেন, অন্য খেলোয়াড়রাও তাদের জাতিসত্তা নিয়ে সতীর্থদের কাছে উপহাসের শিকার হতেন।

নিউজিল্যান্ড হেরাল্ডে প্রকাশিত খবরে দেখা যাচ্ছে আত্মজীবনীর একাংশে টেলর লিখেছেন, নিউজিল্যান্ডে ক্রিকেটে শ্বেতাঙ্গদেরই প্রাধান্য। ভ্যানিলা লাইন-আপে দীর্ঘ সময় আমিই ব্যতিক্রম ছিলাম নিজের 'ব্রাউন ফেস' নিয়ে। এর যে নানা চ্যালেঞ্জও ছিল তাও জানিয়েছেন টেলর। বর্ণবৈষম্য থাকায় সতীর্থ ও দর্শকদের কাছেও অনেক অ-শ্বেতাঙ্গ ক্রিকেটারকে নানা তিক্ত অভিজ্ঞতার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে। টেলর এমনও দাবি করেছেন, তাকে অনেকেই নিউজিল্যান্ডের নাগরিক না ভেবে, অন্য দেশের মনে করতেন।

গত এপ্রিলে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরে গেছেন এই কিউই কিংবদন্তি। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট (এনজেডসি) আজ জানিয়েছে, টেলরের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু হয়েছে।

সতীর্থদের কাছ থেকেই বর্ণবাদের শিকার হওয়ার কথা জানিয়েছেন তিনি। তবে ঠিক কোন পর্যায়ের খেলায়, তা নির্দিষ্ট করে বলেননি। ড্রেসিংরুমের পরিবেশ নিয়ে টেলর জানিয়েছেন, ‘ড্রেসিংরুমের টিপ্পনি অনেকভাবেই চাপ বিস্তার করত। এক সতীর্থই আমাকে বলত, রস, তুমি অর্ধেক ভালো মানুষ। কিন্তু কোন অর্ধেকটা ভালো? আমি কী বোঝাচ্ছি সেটা তুমি জানো না। কিন্তু আমি বুঝে নিতাম। জাতিগত বিষয় নিয়ে এমন সব কথা অন্য খেলোয়াড়দেরও মেনে নিতে হয়েছে। একজন পাকেহা (নিউজিল্যান্ডের সাদা চামড়ার মানুষ) এসব শুনে ভাবত, ওহ, এসব তো স্রেফ ঠাট্টা–মশকরা। কিন্তু তাদের দৃষ্টিভঙ্গিটা সাদা চামড়ার মানুষ হিসেবে, আর এসব কথা তাদের শুনতে হয় না। তাই কোনো প্রতিবাদ হতো না, কেউ শুধরে দিত না। ’

টেলরের বর্ণবাদের শিকার হওয়ার ঘটনা শুনে নিউ জিল্যান্ড ক্রিকেটের এক মুখপাত্র গণমাধ্যমটিকে বলেছেন, ‘রস এই ধরনের আচরণের শিকার হওয়ায় আমরা গভীর দুঃখ প্রকাশ করছি। আমরা এই বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে অবশ্যই রসের সঙ্গে যোগাযোগ করবো। ’ 

বাংলাদেশ সময়: ১৮৪৫ ঘণ্টা, আগস্ট ১১, ২০২২
এআর

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa