ঢাকা, মঙ্গলবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৪ মে ২০২২, ২২ শাওয়াল ১৪৪৩

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

‘আমার গাড়ি নিরাপদ’র আওতায় সাড়ে ১৭ হাজার মালিক-চালক

মিনহাজুল ইসলাম, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২০, ২০২২
‘আমার গাড়ি নিরাপদ’র আওতায় সাড়ে ১৭ হাজার মালিক-চালক ছবি: উজ্জ্বল ধর

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিতে ‘আমার গাড়ি নিরাপদ’ কর্মসূচির আওতায় ১৭ হাজার ৫৫০টি সিএনজি অটোরিকশার মালিক-চালককে রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করা হয়েছে। এর মধ্যে ৪ হাজার ৮৬২ জন মালিক ও ১২ হাজার ৬৮৮ জন চালক।

বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) রাতে বাংলানিউজকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন ট্রাফিক উত্তর বিভাগের উপ কমিশনার (ডিসি) জয়নুল আবেদীন। তিনি বলেন, ইতিমধ্যে ১ হাজার ৮৫০ জন মালিকের কিউআর কোড সম্বলিত স্টিকার ও ৬০০ চালকের কিউআর কোড সম্বলিত আইডি কার্ড সম্পন্ন হয়েছে। প্রত্যেক দিন ধারাবাহিকভাবে মালিকের কিউআর কোড সম্বলিত স্টিকারগুলো সিএনজি অটোরিকশায় লাগানো ও চালকদের বিতরণ করা হচ্ছে।  

নগরে রেজিস্ট্রেশনভুক্ত সাড়ে ১৩ হাজার সিএনজি অটোরিকশা রয়েছে এমন এক প্রশ্নের জবাবে ডিসি জয়নুল আবেদীন বলেন, আমরা এখানে সিএনজি অটোরিকশার রেজিস্ট্রেশন করছিনা, সেটা করে বিএআরটি। আমরা করছি চালক ও মালিকের, এক মালিকের একাধিক সিএনজি অটোরিকশা থাকতে পারে। আর নগরে সাড়ে ১৩ হাজার সিএনজি অটোরিকশা থাকলেও চালক তিন থেকে চার গুণ থাকতে পারে। চালকরা বদলি সিএনজি অটোরিকশা চালিয়ে থাকে।  

দুই ভাবে রেজিস্ট্রেশন করা হয় জানিয়ে ডিসি জয়নুল আবেদীন বলেন, চালক ও মালিকের আলাদাভাবে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে। মালিকের যে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে, সেখানে সিএনজি অটোরিশকার মালিকের নাম ও নম্বরসহ বিস্তারিত তথ্য রয়েছে। আর চালকের যে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে সেখানে চালকের নামসহ বিস্তারিত তথ্য রয়েছে। মালিকের তথ্য নিয়ে কিউআর কোড সম্বলিত স্টিকার সিএনজি অটোরিকশার সামনে গ্লাসে লাগানো হচ্ছে। আর চালকেরা সিএনজি অটোরিকশার চালানোর সময় যাত্রী বসার আসনের সামনে গ্রিলে কিউআর কোড সম্বলিত আইডি কার্ড ঝুলিয়ে রাখবে।

গত ৪ জানুয়ারি নগরের জিইসি মোড়ে জিইসি কনভেনশন সেন্টারে ‘আমার গাড়ি নিরাপদ’ উদ্যোগের আওতায় রেজিস্ট্রেশনকৃত গাড়িতে কিউআর কোড সম্বলিত স্টিকার লাগানোর কার্যক্রমের উদ্বোধন করেছিলেন সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর। একই স্থানে বৃহস্পতিবার (২০ জানুয়ারি) দুপুরে ‘আমার গাড়ি নিরাপদ’ ধারাবাহিকভাবে রেজিস্ট্রেশনের 
আওতায় সিএনজি অটোরিকশায় কিউআর কোড সম্বলিত স্টিকার লাগানো ও চালকদের কিউআর কোড সম্বলিত আইডি কার্ড বিতরণ করেন ডিসি ট্রাফিক (উত্তর) জয়নুল আবেদীন। এ সময় চালকদের টি-শার্ট বিতরণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন এডিসি ট্রাফিক (উত্তর) মো. কাজী হুমায়ন রশিদ, এসি ট্রাফিক (উত্তর) মমতাজ উদ্দীন, উত্তর ট্রাফিক (প্রশাসন) সেলিমুর রহমান, টিআই পাঁচলাইশ মনজুর হোসেন।

নগরের ৮টি পয়েন্টে স্থাপিত বুথের মাধ্যমে প্রত্যেক দিন সিএনজি অটোরিকশার মালিক ও চালকের রেজিস্ট্রেশন চলমান এবং মালিকের কিউআর কোড সম্বলিত স্টিকার ও চালকের কিউআর কোড সম্বলিত আইডি কার্ড বিতরণ করা হবে। পয়েন্টগুলো হলো- জিইসি মোড়, টাইগারপাস, নিউমার্কেট, বহদ্দারহাট, বাদামতলী, অলংকার, মইজ্যারটেক ও সিমেন্ট ক্রসিং ট্রাফিক পুলিশ বক্স। নগরে চলাচলরত রেজিস্ট্রেশনকৃত প্রায় ১৩ হাজার সিএনজি অটোরিকশাকে এ কার্যক্রমের আওতায় আনার পরিকল্পনা নিয়েছে সিএমপি।

গত ২৬ ডিসেম্বর বিকেলে নগরের জিইসি মোড়ে স্থাপিত বুথে বিদ্যানন্দ ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় ‘আমার গাড়ি নিরাপদ’ কার্যক্রমে রেজিস্ট্রেশনকৃত সিএনজি অটোরিকশা মালিক-চালকদের হাতে শুভেচ্ছা উপহার সামগ্রী বিতরণকালে সিএমপি কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর বলেন, যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা ও নিরাপত্তা অনুভূতি ছড়িয়ে দেওয়াই ‘আমার গাড়ি নিরাপদ’ কার্যক্রমের মূল উদ্দেশ্য। বিভিন্ন সময় সাধারণ যাত্রীরা তাদের অনেক মূল্যবান সামগ্রী সিএনজি অটোরিকশায় ফেলে আসেন। যাত্রীরা যদি নিউমেরিক আইডিটি অথবা কিউআর কোড স্ক্যান করে রাখেন পরবর্তীতে সহজেই সিএনজিচালিত অটোরিকশাটি খুঁজে পাওয়া সম্ভব। সিএনজিচালিত অটোরিকশার মাধ্যমে সংঘটিত বিভিন্ন অপরাধ সহজেই উদঘাটন ও নিয়ন্ত্রণ করা যাবে। একইসঙ্গে সিএনজি মালিক তার গাড়ি যেকোনো চালককে দেওয়ার আগেই সহজেই চালকের ভেরিফিকেশন কার্ড দেখে চালক সম্পর্কে নিশ্চিত হতে পারবেন। একজন সিএনজিচালক ভেরিফাইড থাকলে যাত্রী এবং গাড়ির মালিকের কাছে চালক সম্পর্কে ইতিবাচক ধারণা তৈরি হবে।

গত ৬ ডিসেম্বর দুপুরে দামপাড়ায় চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ লাইন্সে ‘আমার গাড়ি নিরাপদ’ এ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন কমিশনার সালেহ মোহাম্মদ তানভীর। নগরের সিএনজি চালিত অটোরিকশা যাত্রীদের জন্য বিশেষ করে নারী ও শিশুদের ক্ষেত্রে দিন-রাত সব সময় নিরাপদ বাহন হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করার উদ্দেশ্যেই সিএমপি ‘আমার গাড়ি নিরাপদ’ উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছিল। যাত্রীদের মধ্যে নিরাপত্তা ও নিরাপত্তার অনুভূতি ছড়িয়ে দেওয়ার প্রয়াসেই এ উদ্যোগ। গত ১৯ ডিসেম্বর চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) লাইন্সের সিএমপি কমিশনার অফিসে 'আমার গাড়ি নিরাপদ' উদ্যোগের আওতায় সর্বোচ্চ গাড়ি রেজিস্ট্রেশন করে পুরস্কৃত হয়েছিল সিএমপি ট্রাফিক উত্তর বিভাগের পুলিশ পরিদর্শক টিআই প্রবর্তক মনজুর হোসেন ও ট্রাফিক পশ্চিম বিভাগের টিআই (এডমিন) বিপ্লব কুমার।  

বাংলাদেশ সময়: ২১০৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২০, ২০২২
এমআই/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa