ঢাকা, মঙ্গলবার, ১০ বৈশাখ ১৪৩১, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ১৩ শাওয়াল ১৪৪৫

দিল্লি, কলকাতা, আগরতলা

কল্যাণী কাজীকে রবীন্দ্র সদনে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হবে

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৬৪১ ঘণ্টা, মে ১২, ২০২৩
কল্যাণী কাজীকে রবীন্দ্র সদনে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হবে

কলকাতা: কবি কাজী নজরুল ইসলামের পুত্রবধূ প্রয়াত কল্যাণী কাজীকে রোববার (১৪ মে) কলকাতার রবীন্দ্র সদনে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হবে। পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার এ উদ্যোগ নিয়েছে।

 

শুক্রবার (১২ মে) স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৫টায় কলকাতার সরকারি পিজি হাসপাতালে (এসএসকেএম হাসপাতাল) শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন কল্যাণী কাজী। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর। বার্ধক্যজনিত কারণে মায়ের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন ছেলে অরিন্দম কাজী।

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের ছোট ছেলে কাজী অনিরুদ্ধ। তার সন্তান অরিন্দম কাজী জানান, যেহেতু বোন অনিন্দিতা কাজী নিউ জার্সিতে থাকেন, তার অনুরোধে মায়ের মরদেহ হিমাঘরে রাখা হয়েছে। রোববার মায়ের শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে।

মৃত্যুর পর কল্যাণী পিজি হাসপাতাল থেকে সরকারি স্কোয়াডে মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় দমদম পাইকপাড়ার বাসভবনে। সঙ্গে ছিলেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের সংস্কৃত দফতরের মন্ত্রী গায়ক ইন্দ্রনীল সেন ও কলকাতা করপোরেশনের (এমআইসি) দেবাশীষ কুমার-সহ পরিবারের সদস্যরা।

ওই অঞ্চলের টালাপার্কে থাকতেন কল্যাণী কাজী। বর্তমানে থাকেন তার ছেলে অরিন্দম কাজী। সেই বাসায় তাকে শ্রদ্ধা জানিয়ে নিয়ে আসা হয় তোপসিয়া সংলগ্ন পিস ওয়ার্ডে। এখানেই দুদিন হিমঘরে শায়িত থাকবে কল্যাণী কাজীর মরদেহ।

রোববার সকাল ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত তার মরদেহ রাখা থাকবে রবীন্দ্রসদনে প্রাঙ্গণে। সেখানেই সবাই তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে পারবে। এরপর সেখান থেকে পার্কসার্কাস গোবরা কবরস্থানে শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। অরিন্দম কাজী জানান, ওই কবরস্থানেই শায়িত আছেন বাবা কাজী অনিরুদ্ধ ও চাচা সব্যসাচী কাজী।

কলকাতা কর্পোরেশনের এমআইসি দেবাশীষ কুমার বলেন, কদিন আগেই সমরেশ মজুমদার চলে গেলেন, এবার কল্যাণী কাজী। এটা বাংলা সাহিত্য-সংস্কৃতিতে বড় আঘাত। তিনি নজরুলের পরিবারের সদস্য। স্বাভাবিকভাবেই কলকাতার মানুষের আলাদা ভাবে গেছে। সে কারণেই রবীন্দ্রসদনে শ্রদ্ধা জানাতে তার মরদেহ রাখা হবে।

কাজী সব্যসাচীর মেয়ে মিষ্টি কাজী জানান, কাকিমা (কল্যাণী কাজী) আমাকে সব সময় বলতো, ‘জন্মের পর আমার কোলে করেই তুই হসপিটাল থেকে বাড়ি এসেছিলিস। ’ আজ আমি সেই কাকিমাকে হাসপাতাল থেকে নিয়ে গেলাম। আজ আমাদের পরিবারের আর কেউ রইল না। আমি গভীর শ্রদ্ধা জানাচ্ছি তার আত্মার প্রতি। মাগফেরাত কামনা করছি কাকিমা যেন শান্তিতে থাকেন।

কল্যাণী কাজীর মৃত্যুতে শুক্রবার সকালেই শোক প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শোক বার্তায় বলেছেন, বিশিষ্ট সঙ্গীত শিল্পী এবং কাজী নজরুল ইসলামের কনিষ্ঠ পুত্রবধূ তথা কাজী অনিরুদ্ধর স্ত্রী কল্যাণী কাজীর প্রয়াণে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। আজ সকালে তিনি কলকাতায় প্রয়াত হয়েছেন। বয়স হয়েছিল ৮৭ বছর। তার অসামান্য গায়কীতে গাওয়া নজরুল গীতি শ্রোতাদের মুগ্ধ করে রাখত। পশ্চিমবঙ্গ সরকার ২০১৫ সালে তাকে ‘সঙ্গীত মহাসম্মান’ দেয়। তার প্রয়াণে সংগীত জগতে এক অপূরণীয় ক্ষতি হলো। আমি কল্যাণী কাজীর আত্মীয়-স্বজন ও অনুরাগীদের সমবেদনা জানাচ্ছি।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৪০ ঘণ্টা, মে ১২, ২০২৩
ভিএস/এসএ
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।