ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩০, ০২ জুন ২০২৩, ১৩ জিলকদ ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

নিত্যব্যবহার্য পণ্যে মূসক ও শুল্ক অব্যাহতির প্রস্তাব

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০১০৭ ঘণ্টা, মার্চ ২৯, ২০২৩
নিত্যব্যবহার্য পণ্যে মূসক ও শুল্ক অব্যাহতির প্রস্তাব

ঢাকা: নিত্যব্যবহার্য পণ্যে মূসক (মূ্ল্য সংযোজন কর) ও শুল্ক অব্যাহতির প্রস্তাব করেছে ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ড্রাস্ট্রি (এফবিসিসিআই)।

মঙ্গলবার (২৮ মার্চ) রাজধানীর আগারগাঁওয়ের জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর) ভবনে অনুষ্ঠিত প্রাক বাজেট সংক্রান্ত এক সভায় এ প্রস্তাব দেয় এফবিসিসিআই।

এ সময় এফবিসিসিআই-এর সভাপতি মো. জসিমউদ্দিনসহ অন্য নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

বৈঠক সূত্র জানায়, নিম্ন আয় ও দরিদ্র জনগোষ্ঠীর ব্যবহার্য পণ্য, সাধারণ পণ্য পরিবহন, নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ও সেবা, স্থানীয়ভাবে উৎপাদিত শিল্পের কাঁচামাল, বর্জ্য ব্যবস্থাপনা, রি-সাইক্লিং, টেন্ডার বহির্ভূত সরাসরি পণ্য মেরামত বা সার্ভিসিং খাতে মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক অব্যাহতির প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

এছাড়া আউটপুট ভ্যাট থেকে ইনপুট ভ্যাট সমন্বয় করার সুবিধাসহ পণ্য ও পরিসেবার লেনদেনের ওপর মূসক ১৫ শতাংশ করা, রিয়েল স্টেট, লোহা ও ইস্পাত ইত্যাদি খাতের জন্য নির্দিষ্ট ট্যারিফভিত্তিক মূসক বহাল রাখার প্রস্তাব দেয় সংগঠনটি।

অন্যান্য প্রস্তাবের মধ্যে রয়েছে- ইনপুট ভ্যাট সমন্বয় করা না হলে সব প্রক্রিয়াজাত পণ্যে এবং সেবার লেনদেন মূল্যের ওপর নির্ধারিত হারে মূল্য সংযোজনের ওপর ১৫ শতাংশ মূসক বহাল করা, ইনপুট ভ্যাট সমন্বয় না করা হলে পাইকারি এবং খুচরা বিক্রয় পর্যায়ে লেনদেনের মূল্যের ওপর মূসক শূন্য দশমিক ৫ শতাংশ হারে বহাল করা।  

বাংলাদেশ সময়: ০১০৬ ঘণ্টা, মার্চ ২৯, ২০২৩
জেডএ/ইইউডি/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa