ঢাকা, বুধবার, ১৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২৯ মে ২০২৪, ২০ জিলকদ ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

রিহ্যাব মেলায় উপচে পড়া ভিড়

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৩১১ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৫
রিহ্যাব মেলায় উপচে পড়া ভিড় ছবি: শাকিল- বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র থেকে: আবাসন শিল্পের সবচেয়ে বড় আকর্ষণ রিহ্যাব মেলার চতুর্থ দিন শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) লক্ষ্য করা গেছে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়।

তবে শনিবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) অনুষ্ঠিত বিচার বিভাগীয় সম্মেলনে রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদের উপস্থিতির কারণে মেলা দুই ঘণ্টা পরে অর্থাৎ বেলা ১২টায় শুরু হয়।



বিআইসিসি থেকে রাষ্ট্রপতি বের হওয়ার সাথে সাথে মেলায় আগত দর্শনার্থীদের ঢল নামে রিহ্যাব মেলায়। রিহ্যাব মেলায় প্রধান আকর্ষণ আবাসন শিল্পের সাথে সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো নানা অফার দিয়ে ক্রেতা আকর্ষণ করছে। এবারের মেলায় ক্রেতাদের সাড়া মিলছে বলে আবাসন শিল্প মালিকদের মধ্যে স্বস্তির নিৰশ্বাস।

পরিকল্পিত আবাসন গড়তে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও গত ২৩ ডিসেম্বর রিয়েল এস্টেট এন্ড হাউজিং অ্যাসোসিয়েশেন অব বাংলাদেশ (রিহ্যাব) বিশেষ মেলার আয়োজন করেছে। পাঁচ দিনব্যাপী  এই মেলা চলবে আগামী ২৭ ডিসেম্বর পর্যন্ত।

এবারের আবাসন মেলায় ৯৫টি স্টল রয়েছে। বিভিন্ন হাউজিং কোম্পানির ফ্ল্যাট বিক্রির পাশাপাশি রয়েছে  আবাসন শিল্পের প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদির স্টল।
প্রতিদিন সকাল ১০ টাকা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত দশনার্থীদের প্রবেশের সুযোগ রয়েছে।

মেলায় প্রবেশের জন্য দুই ধরনের টিকিট রয়েছে। সিঙ্গেল টিকিট এবং মাল্টিপল টিকিট। সিঙ্গেল টিকিটের মূল্য ৫০টাকা, মাল্টিপল টিকিটের মূল্য ১০০ টাকা। মাল্টিপল টিকিটে পাঁচবার মেলায় প্রবেশের সুযোগ রয়েছে।

মেলায় অংশগ্রহণকারী প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে আমিন মোহাম্মদ ফাউন্ডেশন লিমিটেড, আমিন মোহাম্মদ ল্যান্ডস ডেভলপমেন্ট লিমিটেড, অ্যাসুরেন্স ডেভলপমেন্ট লিমিটেড, কম্প্রিহেন্সিভ হোল্ডিং লিমিটেড, কনকর্ড রিয়েল এস্টেট এন্ড ডেভলপমেন্ট লি., ডম ইনো বিল্ডার্স লি., ইস্টার্ণ হাউজিং লি., জেনেটিক  লি., মোহাম্মদী গ্রুপ, এনা রিয়েল এস্টেট প্রপার্টিস লিমিটেডসহ ৯৫টি প্রতিষ্ঠান।

২০০১ সাল থেকে রিহ্যাব আবাসন শিল্পে ক্রেতা, বিক্রেতাদের সেতু বন্ধন তৈরিতে এই মেলার আয়োজন করে আসছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৩১৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৬, ২০১৫
এসএম/আরআই 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।