ঢাকা, রবিবার, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ০৩ জুলাই ২০২২, ০২ জিলহজ ১৪৪৩

অর্থনীতি-ব্যবসা

৫০০ টাকা রিচার্জ: গ্রাহক স্বার্থ দেখবে বিটিআরসি

ইসমাইল হোসেন, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৫
৫০০ টাকা রিচার্জ: গ্রাহক স্বার্থ দেখবে বিটিআরসি

ঢাকা: মোবাইলের প্রি-পেইড সংযোগে দিনে সর্বোচ্চ ৫০০ টাকা রিচার্জের সীমা বেঁধে দেওয়ার পর অপারেটরদের আপত্তির মুখে ওই নির্দেশনা পুনরায় বিবেচনা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসি বলছে, গ্রাহকদের স্বার্থের সঙ্গে জাতীয় স্বার্থকেও গুরুত্ব দেওয়া হবে।

 

দিনে ৫০০ টাকার বেশি রিচার্জ করা যাবে না- এমন নির্দেশনা দিয়ে গত ২৯ ডিসেম্বর অপারেটরদের চিঠি দেয় বিটিআরসি।

এরপর অপারেটরদের পক্ষ থেকে আপত্তি জানিয়ে দুই হাজার টাকা নির্ধারণের অনুরোধ জানানো হয়।

 এই নির্দেশনা নিয়ে বৃহস্পতিবার (৩১ ডিসেম্বর) অপারেটরদের সঙ্গে আলোচনার পর বিটিআরসি চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ বাংলানিউজকে বলেন, আমরা অপারেটরদের ফিডব্যাক নিয়েছি।

‘গ্রাহকদের সুবিধাটাই বড় বিষয়, বিশ্লেষণে যদি দেখা যায় তাহলে সিদ্ধান্ত নেবো। ’
 
নির্দেশনা পুনরায় বিবেচনা হবে কি-না? জানতে চাইলে বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, আলোচনা করে এ বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানানো হবে।

এর আগে তিনি জানিয়েছিলেন, অবৈধ ‍ভিওআইপি ঠেকানো এবং বেশি সংখ্যক সিমে অল্প অল্প করে রিচার্জের কারণে ৫০০ টাকা রিচার্জের সীমা বেঁধে দেওয়া হয়।

‘গ্রাহকদের স্বার্থের সঙ্গে জাতীয় স্বার্থও দেখতে হবে’ উল্লেখ করে বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, কীভাবে অবৈধ ভিওআইপি রোধ করা যায় সেটাও দেখতে হবে।

নির্দেশনায়, প্রি-পেইড গ্রাহকেরা মাসে ১ হাজার টাকা ব্যালেন্স ট্রান্সফার এবং দিনে ৩০০ টাকার বেশি ট্রান্সফার  করতে পারবেন না বলে জানানো হয়।

২০০৮ সালের একটি নির্দেশনায় একবার সর্বোচ্চ ১ হাজার টাকা রিচার্জ করার নিয়ম থাকলেও প্রতিদিনের রিচার্জ সীমা নির্ধারণ ছিল না।

আগেও প্রতি মাসে ব্যালেন্স ট্রান্সফার ছিল ১ হাজার টাকা, আর প্রতিদিন ব্যালেন্স ট্রান্সফার করা যেত ১০০ টাকা, নতুন নির্দেশনায় তা বাড়িয়ে ৩০০ টাকা করা হয়। একজন প্রি-পেইড গ্রাহক সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা ব্যালেন্স রাখতে পারবেন।
 
বিটিআরসি-এর সর্বশেষ নভেম্বর মাসের তথ্যানুযায়ী, ছয়টি মোবাইল অপারেটরের মোট গ্রাহক সংখ্যা ১৩ কোটি ৩১ লাখ ৬৩ হাজার।

এর ৯৮ শতাংশই প্রি-পেইড গ্রাহক বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।  

মোবাইল অপারেটরগুলোর সংগঠন অ্যাসোসিয়েশন অব মোবাইল টেলিকম অপারেটরস অব বাংলাদেশ (অ্যামটব) বলছে, ৫০০ টাকার সীমা বেধে দেওয়ায় গ্রাহকেরা ১৫ শতাংশ মূল্য সংযোজন কর এবং ৩ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক বাদ দিয়ে ৪২২ টাকা ব্যবহার করতে পারবে। এতে ইন্টারনেট ব্যবহার ও ভয়েস কলের ক্ষেত্রে সমস্যায় পড়বেন গ্রাহকেরা।

অ্যামটব মহাসচিব টিআইএম নুরুল কবির বাংলানিউজকে বলেন, নতুন নির্দেশনা নিয়ে সভায় আলোচনা হয়েছে। আমরা আমাদের কথা বলেছি। তবে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি।

বাংলাদেশ সময়: ২১২৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৫
এমআইএইচ/এমএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa