ঢাকা, শুক্রবার, ৫ বৈশাখ ১৪৩১, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৯ শাওয়াল ১৪৪৫

অর্থনীতি-ব্যবসা

ডিজিটাল বাংলাদেশের নেতৃত্ব দিচ্ছেন তরুণরা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১১৫৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১০, ২০১৭
ডিজিটাল বাংলাদেশের নেতৃত্ব দিচ্ছেন তরুণরা জাতীয় ভ্যাট দিবস ও ভ্যাট সপ্তাহ- ২০১৭ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী

ঢাকা: নতুন করদাতাদের বেশির ভাগই তরুণ। এই তরুণ সমাজই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত।

রোববার (১০ ডিসেম্বর) বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁও জাতীয় রাজস্ব বোর্ড মিলনায়তনে জাতীয় ভ্যাট দিবস ও ভ্যাট সপ্তাহ- ২০১৭ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী একথা বলেন।

এনবিআর চেয়ারম্যান নজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু, অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি ড. আব্দুর রাজ্জাক, এফবিসিসিআই সভাপতি  শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন প্রমুখ।

অর্থমন্ত্রী বলেন, আমাদের দেশে রাজস্ব কম, চাহিদা বেশি। কিন্তু গত কয়েক বছরে এ অবস্থার পরিবর্তন হয়েছে। এখন যারা কর দিচ্ছেন তাদের বেশির ভাগেরই বয়স ৪০ এর নিচে। যাদের আমরা তরুণ বলি। এরাই মূলত দেশটাকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, তরুণরা মনে করেন দেশের উন্নয়নে তাদের কিছু করা দরকার। তাই তারা কর দিয়ে সরকারের উন্নয়নমূলক কাজে সহযোগিতা করছে। আমরা যে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্ন দেখছি। সেখানেই নেতৃত্বে রয়েছে তরুণ সমাজ। কাজেই তরুণরাই দেশটাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

উন্নয়ন প্রকল্পকে তরান্বিত করতে কর দিতে দেশবাসীকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেন, সরকারের যেটা আয় হয় সেটা দেশের মানুষের ব্যয়। আর দেশের মানুষের যেটা ব্যয় সেটা সরকারের আয়। কেননা জনগণ ভ্যাট দিলেই উন্নয়ন হয়। জনগণের টাকা দিয়ে সরকার উন্নয়ন কর্মকাণ্ড করে।

লিখিত বক্তব্যে শিল্পমন্ত্রী বলেন, বলতে দ্বিধা নেই, দেশের স্বচ্ছল জনগোষ্ঠীর মধ্যে কর দেওয়ার প্রবণতা এখনো আশানুরূপ নয়। প্রায় ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে এখন পর্যন্ত ই-টিআইএন ধারীর সংখ্যা প্রায় ৩৩ লাখ। এদের মধ্যেও প্রায় সাড়ে ১৮ লাখ নিয়মিত আয় কর রিটার্ন জমা দিচ্ছেন। যারা আয় কর রিটার্ন দেন তাদের প্রায় অর্ধেক সরকারি, আধা সরকারি কিংবা স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তা। কর পরিশোধের ক্ষেত্রে এ ধরনের নেতিবাচক মানসিকতা থেকে  আমাদের বের হয়ে আসতে হবে।

অনুষ্ঠানে ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে কর দিতে উৎসাহ, সহযোগিতা এবং সর্বোচ্চ করদাতা ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানসহ ১৪০ জনকে সম্মাননা স্মারক ও সম্মানিত কার্ড দেওয়া হয়। এদের মধ্যে প্রধান তথ্য অফিসার কামরুন নাহার, বিটিভি’র মহাপরিচালক এস এম হারুন-অর-রশীদ, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) ও প্রধান সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, শিল্প সাংস্কৃতিক ক্ষেত্রে অবদানের জন্য চিত্রনায়ক ফেরদৌস আহমেদকে সম্মাননা স্মারক দিতে হয়। এছাড়া উৎপাদক প্রতিষ্ঠানে পুরস্কৃত করা হয় নরসিংদী গ্যাস ফিল্ড, গাজীপুরের হেলথ কেয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লি. প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশসহ ১৪০ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৪৪ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১০, ২০১৭
এসএম/এসএইচ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।