ঢাকা, সোমবার, ১৬ মাঘ ১৪২৯, ৩০ জানুয়ারি ২০২৩, ০৭ রজব ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

ইনস্টলমেন্ট বাকি থাকলেও পাবেন ফ্ল্যাটের চাবি! 

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৭
ইনস্টলমেন্ট বাকি থাকলেও পাবেন ফ্ল্যাটের চাবি!  টাগুচি কনস্ট্রাকশনের স্টলে ভিড়-ছবি-শাকিল আহমেদ

ঢাকা: বুকিং দিয়েছেন, অ্যাডভান্স টাকাও জমা দিয়েছেন। কিন্তু শেষ হয়নি ফ্ল্যাটের ২০ শতাংশ কাজও। আবার অনেকে ইনস্টলমেন্টের টাকা পরিশোধের পর বছর ঘুরলেও বুঝে পাচ্ছেন না ফ্ল্যাটের চাবি। এভাবেই ক্রেতাদের নাজেহাল করছে দেশের বিভিন্ন আবাসন প্রতিষ্ঠান।

তবে রাজধানী ঢাকার বুকে নিজের ছোট বাসার স্বপ্ন যারা দেখছেন তাদের চিন্তার দিন এবার শেষ হতে চলেছে। জাপান টাগুচি কনস্ট্রাকশন কোম্পানি লিমিটেড ক্রেতাদের জন্য নিয়ে এসেছে সুখবর।

নামমাত্র বুকিং দিয়ে ইনস্টলমেন্টের টাকা পরিশোধ হওয়ার আগেই পেয়ে যাবেন আপনার স্বপ্নের ফ্ল্যাটের চাবি। ফ্ল্যাটে ওঠার ৬-৯ মাসের মধ্যেও সুযোগ পাবেন ইনস্টলমেন্টের টাকা পরিশোধ করতে।

জাপান টাগুচি কনস্ট্রাকশন কোম্পানি লিমিটেডে বুকিং করা ফ্ল্যাটটি নির্মিত হবে রাজধানীর অন্যতম পরিকল্পিত ও সব নাগরিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায়।

শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) আয়োজিত পাঁচ দিনব্যাপী শীতকালীন আবাসন মেলা রিহ্যাব ফেয়ারে জাপান টাগুচি কনস্ট্রাকশনের স্টল ঘুরে এসব তথ্য জানা গেছে।

কনস্ট্রাকশন কোম্পানিটি বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় জায়গা কিনে ফ্ল্যাট নির্মাণ করে। এসব ফ্ল্যাট ক্রেতারা বিভিন্ন মেয়াদি ইনস্টলমেন্ট সুবিধায় কিনতে পারবেন। ফ্ল্যাট নির্মাণে কোম্পানিটি পাথর, বিএসআরএম রড, হোন্ডাই লিফট ও বাথরুম ফিটিংস টোটোর সামগ্রী ব্যবহার করে।

টাগুচি কনস্ট্রাকশনের স্টলে ভিড়-ছবি-শাকিল আহমেদএছাড়া প্রতিটি ফ্ল্যাটে থাকছে গ্রিন ভেল্টিনেশন সুবিধা এবং বিল্ডিংয়ের সামনে ও পেছনে থাকবে সবুজায়ন ব্যবস্থা। টাগুচি কনস্ট্রাকশন কোম্পানিটির প্রতিটি ফ্ল্যাটের পার স্কয়ারফিট বিক্রি হচ্ছে সাড়ে ৬ হাজার টাকা থেকে সাড়ে ৯ হাজার টাকা পর্যন্ত। সর্বনিম্ন ৯৭০ স্কয়ারফিট থেকে সর্বোচ্চ ৩ হাজার ৮০০ স্কয়ারফিট পর্যন্ত ফ্ল্যাট রয়েছে কোম্পানিটির।

স্টল সূত্রে জানা গেছে, রিহ্যাব ফেয়ার চলাকালীন কোনো ক্রেতা ফ্ল্যাট বুকিং দিলে পাচ্ছেন নিশ্চিত ৫-১০ শতাংশ মূল্যছাড়।

জাপান টাগুচি কনস্ট্রাকশন কোম্পানি লিমিটেডর ব্যবস্থাপক (সেলস এবং মার্কেটিং) শিবলি সাদিক বাবু বাংলানিউজকে বলেন, আমাদের প্রধান লক্ষ্য হচ্ছে ক্রেতা সেবা। কোনো ক্রেতা ফ্ল্যাট বুকিং দেওয়ার পর আমাদের লক্ষ্য থাকে কত কম সময়ে ক্রেতার কাছে ফ্ল্যাটটি বুঝিয়ে দিতে পারবো। এছাড়া লেনদেনের বিষয়ে আমরা ক্রেতাদের বিষয়টি সব থেকে বেশি গুরুত্ব দেই। ফ্ল্যাট কিনতে ক্রেতাদের ব্যাংক লোন পাইয়ে দেওয়ার ব্যবস্থাও করা হয় বলে তিনি জানান।

তিনি বলেন, এবারের রিহ্যাব ফেয়ার ভালো যাচ্ছে। দর্শনার্থী ও ক্রেতা সমাগমও অনেক বেশি। ইতোমধ্যে আমাদের ৭টি ফ্ল্যাট বুকিং হয়েছে।
 
বাংলাদেশ সময়: ১৬২৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৩, ২০১৭
এমএসি/আরআর    
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa