ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ মাঘ ১৪২৯, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ১৫ রজব ১৪৪৪

অর্থনীতি-ব্যবসা

দেশে চাহিদার মাত্র ৩ শতাংশ তুলা উৎপাদন হয়

বাকৃবি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২১২৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ৫, ২০১৮
দেশে চাহিদার মাত্র ৩ শতাংশ তুলা উৎপাদন হয় সেমিনারে বক্তব্য রাখেন তুলা উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী পরিচালক ড. মো. ফরিদ উদ্দিন

বাকৃবি (ময়মনসিংহ): দেশের পোশাক শিল্পে তুলার চাহিদা অনেক। কিন্তু দেশে উৎপাদিত তুলা চাহিদার মাত্র ৩ শতাংশ পূরণ করে থাকে। আর বাকি ৯৭ শতাংশ তুলা বিদেশ থেকে আমদানি করতে হয়।

বুধবার (৫ ডিসেম্বর) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বাকৃবি) কৃষি অনুষদের সম্মেলন কক্ষে ‘জলবায়ু পরিবর্তনে বাংলাদেশে তুলা চাষে টেকসই উন্নয়ন’ শীর্ষক সেমিনারে এসব তথ্য ধরেন তুলা উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী পরিচালক ড. মো. ফরিদ উদ্দিন।

তিনি বলেন, জলবায়ু পরিবর্তন ও তুলা চাষের সময়কাল (জুলাই-ডিসেম্বর) বেশি হওয়ায় কৃষকরা তুলা চাষে আগ্রহ হারাচ্ছেন।

তাই তুলা চাষের সময়কাল কমিয়ে তুলার উৎপাদন বৃদ্ধিতে নতুন প্রজাতি ও টেকসই উন্নয়নের জন্য গবেষণা করছে বাংলাদেশ তুলা উন্নয়ন বোর্ড।

তুলার উৎপাদন বৃদ্ধি করতে তুলা চাষের সময়কাল কমানো এবং নতুন প্রজাতি নিয়ে গবেষণা করছে বাংলাদেশ তুলা উন্নয়ন বোর্ড। এতে কৃষকের জন্য তুলা চাষে অপেক্ষা করছে অপার সম্ভাবনা।

তুলা উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী পরিচালক ড. মো. ফরিদ উদ্দিনের সভাপত্বিতে সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আলী আকবর।  

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর, ময়মনসিংহ বিভাগের অতিরিক্ত পরিচালক মো. আসাদুল্লাহ, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় রিসার্চ সিস্টেমের (বাউরেস) পরিচালক ড. এম এ এম ইয়াহিয়া খন্দকার এবং কৃষি অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন অধ্যাপক ড. মো. ফেরদৌস মন্ডল।

এছাড়াও বাকৃবি কৃষি অনুষদের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক, বাংলাদেশ পরমাণু কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউটের (বিনা) বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন তুলা উন্নয়ন বোর্ডের সিনিয়র সায়েন্টিফিক অফিসার ড. কামরুল ইসলাম এবং মুখ্য আলোচক ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. আবুল হাশেম।

বাংলাদেশ সময়: ১৬২৭ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ০৫, ২০১৮
জিপি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa