ঢাকা, সোমবার, ৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৩ মে ২০২২, ২১ শাওয়াল ১৪৪৩

অর্থনীতি-ব্যবসা

মিনিস্টার গ্রুপের ইকমার্স ‘ই-রাজ’এর লােগাে উন্মোচন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৮ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১, ২০২২
মিনিস্টার গ্রুপের ইকমার্স ‘ই-রাজ’এর লােগাে উন্মোচন লােগাে উন্মােচন অনুষ্ঠানে মিনিস্টার গ্রুপের চেয়ারম্যান এম এ রাজ্জাক খান রাজেসহ অন্যরা। ছবি: ডিএইচ বাদল

ঢাকা: জাঁকালাে অনুষ্ঠানে লােগাে উন্মােচন করেছে মিনিস্টার গ্রুপের ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম ‘ই-রাজ’।  

ইলেকট্রনিক পণ্যকে প্রাধান্য দিয়ে সাধারণ ক্রেতাদের জন্য অন্য বিভিন্ন পণ্য সামগ্রীও সরবরাহ করবে এই ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মটি।

শিগগিরই প্ল্যাটফর্মটি ক্রেতাদের জন্য উন্মুক্ত করা হবে।

শনিবার (১ জানুয়ারি) বিকেলে রাজধানীর গুলশানে মিনিস্টার গ্রুপের প্রধান কার্যালয়ে জাঁকালাে অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এ ই-কমার্স সাইটের লােগাে উন্মােচন করা হয়।  

মিনিস্টার গ্রুপের চেয়ারম্যান ও এফবিসিসিআইর সহ-সভাপতি এম এ রাজ্জাক খান রাজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এফবিসিসিআইর সাবেক সভাপতি শেখ ফজলে ফাহিম। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ অ্যাসােসিয়েশন অব কলসেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিংয়ের (বাক্লো) সভাপতি ওয়াহিদ শরীফ, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির (বিসিএস) সভাপতি মােহাম্মদ শাহিদ-উল-মুনীর প্রমুখ।  

অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মিনিস্টার গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক দিলরুবা তনু।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, ‘ই-কমার্সের ক্ষেত্রে সব থেকে বড় যে বিষয়টি, তা হলো কোয়ালিটি কন্ট্রোল। যেহেতু মিনিস্টার গ্রুপের একটি বড় সাপ্লাই চেন ম্যানেজমেন্ট আছে সেহেতু তারা সহজেই এই কাজটি করতে পারবেন বলে আশাবাদী। এছাড়া ‘ই-রাজ’ ই-কমার্স ক্ষেত্রে নতুন মাত্রা যোগ করবে বলে মনে করি। এই সেক্টরে যারা পাইওনিয়ার ছিলেন, তাদের কিছু সমস্যা বা ভুল হয়তো ছিল, তবে এর বাজার এখনো অনেক বড়। বিজনেস মডেল থেকে কেউ যেন ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, সাধারণ মানুষের যেন ক্ষতি না হয়, সেটিই সব থেকে বড় কথা’। অতিথির বক্তব্যে শাহিদ-উল-মুনীর এবং ওয়াহিদ শরীফ বলেন, ‘কোভিডের এই সময়ে ই-কমার্স সাইট বাংলাদেশে যতটা এগিয়েছে, প্রথম দিকে আমাদের চিন্তা ছিল যে, এই অবস্থায় আসছে আরও ১০ বছর সময় লেগে যাবে। এই সময়ে এই সেক্টরে অনেক খারাপ কিছুও হয়েছে, আবার ভালো কিছুও দেখেছি। আশা করি, এটিও ভালো করবে। আর পৃথিবী এখন ডিজিটাল হচ্ছে। সেখান থেকে মিনিস্টার গ্রুপও হচ্ছে ডিজিটাল। ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানে প্রথমে যে ব্যাপারটি থাকে, তা হলো কাস্টমার সার্ভিস নিশ্চিত করতে হবে এবং কাস্টমারের বিশ্বাসযোগ্যতা অর্জন করতে হবে। তবেই সফলভাবে চালানো সম্ভব’। সভাপতির বক্তব্যে এম এ রাজ্জাক খান রাজ বলেন, ‘মিনিস্টার গ্রুপ ২০০২ সালে জার্নি শুরু করে। আমরা সবসময় মানুষের কথা ভাবি। অনেক ই-কমার্স বাজারের ক্ষতি করেছে, মানুষের ক্ষতি করেছে। সেখান থেকে আমাদের মনে হয়েছে আমাদেরও মানুষের পাশে থাকা উচিত। সেজন্যই আমাদের এই ই-কমার্সের চিন্তা। ঝামেলাবিহীন এবং দ্রুততম সময়ে ভালাে পণ্য যেন সবাই পেতে পারে সেলক্ষ্যেই মানসম্মত পণ্যসম্ভার নিয়ে ‘ই-রাজ’ সেবা চালু করা হচ্ছে। এখানে ঘরে বসেই ক্রেতারা সহজেই মিনিস্টারের ইলেক্ট্রনিক পণ্য ছাড়াও বিভিন্ন ব্র্যান্ডের ইলেক্ট্রনিক পণ্য কিনতে পারবে।

অনুষ্ঠান শেষে কেক কেটে আনন্দ উদযাপন করা হয়। আর শিগগিরই ‘ই-রাজ’ প্ল্যাটফর্মটি ক্রেতাদের জন্য উন্মুক্ত করা হবে বলেও জানানো হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৪ ঘণ্টা, জানুয়ারি ০১, ২০২২
এইচএমএস/এএটি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa