ঢাকা, রবিবার, ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৩

শিক্ষা

সরকার শিক্ষার প্রতি বিশেষ নজর দিয়েছে-প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী

রূপগঞ্জ উপজেলা সংবাদদাতা | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৯৫৬ ঘণ্টা, মার্চ ১, ২০১২

রূপগঞ্জ (নারায়ণগঞ্জ): প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী ডা. আফছারুল আমীন বলেছেন, ‘শিক্ষার নিয়মটা ভিন্ন ধরনের, ভিন্ন আদেলের। এ কারণে বর্তমান সরকার শিক্ষার প্রতি বিশেষ নজর দিয়েছে।

দেশের প্রত্যেকটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ ও ল্যাপটপ দিতে না পারলে জাতিকে এগিয়ে নেওয়া যাবে না। ’

তিনি বলেন, ‘আধুনিক যুগে বড় বড় কিন্ডারগার্টেনগুলোতে ল্যাপটপের ব্যবস্থা থাকলেও প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলোতে এ ব্যবস্থা  নেই। বর্তমান সরকার দেশের প্রতিটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ল্যাপটপ দেওয়ার চিন্তা-ভাবনা করছে। ’

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের ভুলতা উচ্চ বিদ্যালয় অ্যান্ড কলেজ প্রাঙ্গণে বৃহস্পতিবার বিকেলে ‘গ্রামীণ অবকাঠামো রক্ষণাবেক্ষণে (টিআর) বিশেষ কর্মসূচি’র আওতায় কম্পিউটার, মাল্টিমিডিয়া ও ল্যাপটপ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন।
 
মন্ত্রী বলেন, ‘রূপগঞ্জের সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী নিজ উদ্যোগে উপজেলার ৫৩টি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ১০২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মধ্যে ল্যাপটপ এবং কম্পিউটার দিয়ে নজির সৃষ্টি করেছেন। ’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দা ফারহানা কাউনাইনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী (বীরপ্রতীক) ও অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মাহাবুবুর রহমান।

এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা সিনিয়র এএসপি (বি-সার্কেল) আবুল কালাম আজাদ, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মিলন হালদার, থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন মোল্লা, মুক্তিযোদ্ধা আল-আমিন দুলাল, আমির হোসেন প্রমুখ।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী (বীর প্রতীক) বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রূপকল্প ভিশন-২০২১-কে সামনে রেখে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে আমার রূপগঞ্জের প্রতিটি শিক্ষা কেন্দ্রে গুরুত্ব দিচ্ছি। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীরা আধুনিক শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে যাতে দেশ গড়ার কাজে অংশগ্রহণ করতে পারে, সেদিকে আমাদের লক্ষ থাকবে।   সেই আশাকে সামনে রেখেই আমি প্রতিটি স্কুলে কম্পিউটার, ল্যাপটপ ও মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টর দেওয়ার ব্যবস্থা করেছি। ’

এসময় উপজেলার ৫৩টি মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ১০২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ৫৩টি ল্যাপটপ, ১০২টি কম্পিউটার, ১০২টি প্রিন্টার ও ২৪টি মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টর বিতরণ করা হয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৫০ ঘণ্টা, মার্চ ০১, ২০১২

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa